1. admin@sonarbangla365.com : newsbangla2023 :
অস্বাভাবিক তাপদাহের কারণে পর্যটকশুন্য কুয়াকাটা জনজীবনে চরম অস্বস্তি - Sonar Bangla365
শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ১০:২৭ পূর্বাহ্ন
আপডেট নিউজ

অস্বাভাবিক তাপদাহের কারণে পর্যটকশুন্য কুয়াকাটা জনজীবনে চরম অস্বস্তি

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ২২ এপ্রিল, ২০২৪
  • ৮৮ Time View
অস্বাভাবিক তাপদাহের কারণে পর্যটকশুন্য কুয়াকাটা জনজীবনে চরম অস্বস্তি
অস্বাভাবিক তাপদাহের কারণে পর্যটকশুন্য কুয়াকাটা জনজীবনে চরম অস্বস্তি

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি : সাগরকন্যা কুয়াকাটায় অস্বাভাবিক তাপমাত্রা এবং অসহ্য গরমে পর্যটকশূন্য হয়ে পড়েছে পর্যটন কেন্দ্র। কোথাও নেই পর্যটকদের কোলাহল। সৈকতজুড়ে শুধু ধু-ধু বালুচর। দীর্ঘ ১৮ কিলোমিটার সৈকতজুড়ে বিরাজ করছে সুনসান নীরবতা।অস্বাভাবিক তাপমাত্রার কারণে কুয়াকাটা পর্যটনকেন্দ্রে কমে গেছে পর্যটক। দীর্ঘ সরকারি ছুটিতেও মিলছে না কাঙ্খিত পর্যটক। স্থানীয় ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তারা বলেছেন, অস্বাভাবিক তাপপ্রবাহের কারণে এবার পর্যটক কমেছে।

স্থানীয়রা জানায়, প্রতিদিন এখানে অনেক দর্শনার্থীদের আগমন ঘটত। সকাল, দুপুর, বিকাল কিংবা গভীর রাত পর্যন্ত পর্যটকদের পদচারণায় সাগরতট থাকত মুখরিত। পর্যটন স্পটগুলোতেও ছিল পর্যটকের উপচেপড়া ভিড়। সাগরের ঢেউ গর্জন করে তীরে আঁছড়ে পড়ছে। দেখলে মনে হয় যেন এসব মনোরম দৃশ্য দেখার কেউ নেই। কিছু পর্যটক থাকলেও তারা দিনের বেলা হোটেল থেকে বের হচ্ছে না প্রচন্ড গরমের কারণে। পর্যটনসংশ্লিষ্ট ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো হয়ে পড়েছে একেবারে গ্রাহকহীন।

সোমবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, কলাপাড়াসহ উপকূলজুড়ে অসহ্য তাপপ্রবাহে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। বৈদ্যুতিক পাখার বাতাসে মিলছে না স্বস্তি। প্রচন্ড গরমের কারণে সবচাইতে বেশি সমস্যায় পড়েছেন খেটে খাওয়া দিনমজুর লোকগুলো। তীব্র তাপদাহে দিশেহারা দেশের বিস্তীর্ণ এলাকার চাষিরা। গত এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে গরমে ঝলসে যাচ্ছে ফসল। গভীর নলকূপ ও পাম্প থেকে সেচ দিয়েও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখা যাচ্ছে না। জমিতে পানি দিলেও নিমেষে তা মাটির গভীরে চলে যাচ্ছে। তীব্র  রোদে ঝরে যাচ্ছে গাছের আম, লিচু, লেবু ও কাঁঠাল। দেখা দিচ্ছে পানি বাহিত বিভিন্ন রোগ।

হোটেল গ্রান্ড সাফা ইনের ম্যানেজার মো. সাইদুর রহমান জানান, প্রচন্ড গরমের কারণে কুয়াকাটায়  পর্যটক নেই। বর্তমানে হোটেলের বিদ্যুৎ বিল ও কর্মচারীদের বেতন পরিশোধ করা দুষ্কর হয়ে পড়েছে।

জেলে দবির মাঝি বলেন, ৩০ বছরের বেশি সময়  ধরে সাগরে মাছ ধরি। কিন্তু প্রতিবছর এতো তাপ থাকে না। চৈত্র-বৈশাখ মাসে দক্ষিণ কিংবা পূর্বে বাতাস হওয়ার কথা। জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে কুয়াকাটায় বসবাস কঠিন হয়ে পড়েছে।

কুয়াকাটা হোটেল-মোটেল ঔনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোতালেব শরীফ  জানায়, গরমে পর্যটক এসে অতিষ্ঠ হয়ে পড়ছেন। যে কারণে মানুষ এসে টিকতে পারছেন না। ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে  কিছু ট্যুরিস্ট এসেছিলো এরপর থেকেই প্রচন্ড গরমের কারণে বর্তমানে হোটেল-মোটেলের সিট ফাঁকা রয়েছে। সাগরের পাড়ে এসে মানুষ উত্তাপে টিকতে পারছে না। লবণাক্ত পানিতে শরীর শুষ্ক হয়ে যাচ্ছে। বেড়িবাঁধে গাছপালা যা ছিল, কাজ করতে গিয়ে তা কেটে ফেলা হয়েছে।

খেপুপাড়া রাডার ষ্টেশনের সিনিয়র আবহাওয়া পর্যবেক্ষক মো. জিল্লুর রহমান বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬ দশমিক ০ ডিগ্রী সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। আগামী আরো এক সপ্তাহ এ অবস্থা অপরিবর্তিত থাকতে পারে। তাই তাপমাত্রা না কমা পর্যন্ত সকলকে সাবধানে থাকার পরামর্শ তাদের। বরিশালের আশপাশে বৃষ্টি হলেও কুয়াকাটায় বৃষ্টি নেই। আগামী এক সপ্তাহে বৃষ্টি না হলে অন্য সিমটম দেখা দিতে পারে বলে জানান তিনি। বিশেষ করে নিম্নচাপ কিংবা ঘূর্ণিঝড় হতে পারে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Copyright © 2017-2023 SonarBangla365
Theme Customized BY LatestNews
%d bloggers like this: