শিরোনাম

আন্দোলনরত ইবতেদায়ি শিক্ষকদের তথ্য নিলেন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৮, ২০২০ ১১:২১:৫৪ পূর্বাহ্ণ
আন্দোলনরত ইবতেদায়ি শিক্ষকদের তথ্য নিলেন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা
আন্দোলনরত ইবতেদায়ি শিক্ষকদের তথ্য নিলেন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা

স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা সরকারিকরণের দাবিতে শিক্ষকদের চলমান কর্মসূচি স্থগিত করা হয়েছে। শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরীর পক্ষ থেকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের গণসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের শিক্ষকদের দাবি দাওয়াবিষয়টি নিশ্চিত করে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা শিক্ষক সমিতির মহাসচিব মোখলেছুর রহমান  বলেন, শিক্ষা উপমন্ত্রীর পক্ষ থেকে মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা এসে শিক্ষকদের দাবি দাওয়া সম্বলিত কাগজপত্র নিয়ে গেছেন। তিনি জানিয়েছেন উপমন্ত্রী মহোদয় আমাদের বিষয়টি দেখবেন। আমরা আশ্বস্ত হয়ে আন্দোলন স্থগিত করেছি।

এক প্রশ্নের জবাবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের শিক্ষকদের সাথে দেখা করে তাদের দাবি দাওয়া ও তথ্য সংগ্রহ করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহোদয়ের নির্দেশে শিক্ষকদের দাবি দাওয়ার তথ্য সংগ্রহ করেছি। এরপর শিক্ষকরা তাদের আন্দোলন প্রত্যাহার করেছেন। সম্বলিত কাগজপত্র গ্রহণ করেছেন। মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তার কাগজপত্র দিয়ে অবস্থান কর্মসূচি স্থগিত করা হয়েছে।

এরআগে রোববার গভীর রাতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থানরত শিক্ষকদের বল প্রয়োগ করে তুলে দেয়া হয়েছিল। সাধারণ শিক্ষকদের অভিযোগ তাদের লাঠিচার্জ করে তুলে দিয়েছে পুলিশ। যদিও নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পুলিশ কর্মকর্তার দাবি, কে বা কারা শিক্ষক ও পোশাক শ্রমিকদের তাড়িয়ে দিয়েছে তা তারা জানেন না।

এর আগে গত ১৫ নভেম্বর থেকে ইবতেদায়ি মাদরাসা সরকারিকরণসহ ৭ দফা দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেছিলেন। শিক্ষকদের দাবিগুলোর মধ্যে ছিল, শিক্ষকদের দাবিগুলো হল, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মতো সব ইবতেদায়ি মাদরাসাকে মুজিববর্ষে সরকারিকরণের ঘোষণা। কোডবিহীন মাদরাসাগুলোকে বোর্ড থেকে কোড নম্বর দেয়া, একজন আলিম শিক্ষকের পরিবর্তে, একজন এইচএসসি পাস শিক্ষক অন্তর্ভুক্ত করা, মাদরাসায় অফিস সহায়ক নিয়োগ, শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা, আসবাবপত্রসহ ভবন নির্মাণ এবং মাদরাসার স্থায়ী রেজিস্ট্রেশনের ব্যবস্থা করা। অবস্থান কর্মসূচিতে সারাদেশ থেকে আসা কয়েকশ শিক্ষক অংশ নিয়েছিলেন।

 

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us