শিরোনাম

আমেরিকার আবিষ্কারক কলম্বাস, বাংলাদেশের আবিষ্কারক হলেন বঙ্গবন্ধু

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শনিবার, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২১ ১১:৩৬:৩৭ পূর্বাহ্ণ
আমেরিকার আবিষ্কারক কলম্বাস, বাংলাদেশের আবিষ্কারক হলেন বঙ্গবন্ধু
আমেরিকার আবিষ্কারক কলম্বাস, বাংলাদেশের আবিষ্কারক হলেন বঙ্গবন্ধু

আব্দুল গফফার : ‘আমেরিকা আবিষ্কার করেছিলেন কলম্বাস, বাংলাদেশের আবিষ্কারক হলেন

বঙ্গবন্ধু। বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বেই। বর্তমান সমাজকে বদলে দেওয়া এবং

বিশ্বের বুকে এ দেশকে তুলে ধরতে হলে বঙ্গবন্ধুর মতো নেতৃত্বের কোনো বিকল্প নেই। এই নেতৃত্ব

গুণাবলি অর্জিত হয় সামাজিক বিভিন্ন কর্মকান্ডে অংশগ্রহণের মাধ্যমে। ১২ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) বিকেলে সিলেট জেলার কানাইঘাটের ‘গোয়ালজুর আদর্শ তরুণ সংঘ’ কর্তৃক প্রকাশিত স্মারকগ্রন্থ ‘আদর্শ’ -এর মোড়ক উম্মোচন ও সম্মাননা স্মারক প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বদরুল ইসলাম শোয়েব। ‘আদর্শ’ ম্যাগাজিনের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে বদরুল ইসলাম শোয়েব বলেন, ‘বর্তমান যুব সমাজ যেখানে বিভিন্নধরণের অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িত সেখানে গোয়ালজুর আদর্শ তরুণ সংঘের সদস্যরা সামাজিক কর্মকান্ড ও সমাজের দর্পণ ম্যাগাজিন প্রকাশে ব্যস্ত। এই ব্যাতিক্রমধর্মী কার্যক্রমই সমাজ বিনির্মাণে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে।’ উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সিলেট এমসি কলেজের প্রভাষক আব্দুল বাসিত বলেন, এই দেশের অকল্পনীয় অগ্রগতির পেছনে যাদের ভূমিকা অনস্বীকার্য তারা হলো রেমিটেন্স যোদ্ধা (প্রবাসী)। এই সংগঠন সেই যোদ্ধাদের মূল্যায়ন করেছে যা

প্রশংসার দাবি রাখে। প্রবাসীরা বাঁচলে বাঁচবে এই দেশ, সুতরাং তাদের (প্রবাসীদের) সঠিক মূল্যায়ন

দেশের সার্বিক কল্যাণ বয়ে আনবে।’ এ মোড়ক উম্মোচন ও স্মারক প্রদান অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত

অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের ব্যাক্তিগত

সহকারী শফিউল আলম জুয়েল। এ অনুষ্ঠানে মরণোত্তর সংবর্ধনা প্রদান করা হয় কানাইঘাটের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব বশির আহমদকে। এছাড়া গাছবাড়ী মডার্ন একাডেমীর অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আব্দুল মতিন ও আলহাজ্ব বশির আহমদ উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মাওলানা এহসান

উল্লাহকে সম্মামনা স্মারক প্রদান করা হয়। হাফিজ কমর উদ্দীনের কুরআন তেলাওয়াতের

মাধ্যমে শুরু হওয়া উক্ত অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখে গোয়ালজুর আদর্শ তরুণ সংঘের প্রতিষ্ঠাতা

সাধারণ সম্পাদক রোটারেক্টর আমিনুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘ স্রোতের বিপরীতে গিয়ে ২০১২

সালের ২৮ মার্চ আমরা এ সংঘের যাত্রা শুরু করি পিছিয়ে পড়া এই সমাজটাকে আরেকটু সুন্দর

করে গড়ে তুলতে। দীর্ঘ ৯ বছরে এ সংঘ তার চূড়ান্ত লক্ষ্যে পৌঁছতে না পারলেও অনেক

গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছে এই সমাজ বিনির্মাণে। সকলের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় আমরা একটি

সুন্দর, দূর্নীতিমুক্ত সমাজ গঠন করতে পারব বলে আশা করি।’ গোয়ালজুর আদর্শ তরুণ সংঘের সভাপতি সাইফুল আলমের সভাপতিত্বে ও এ সংঘের সাধারণ সম্পাদক রাহেল আহমদের

সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সেকশন অফিসার এম মামুন

উদ্দীন, নাগরিক কমিটির সভাপতি মিছবাহ, ঢাকনাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী

শিক্ষক আমিন উদ্দীন, ড্রীম লাইট একাডেমীর প্রধান শিক্ষক দেলোয়ার হেসেন, ঢাকনাইল সমাজ

উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি কবির আহমদ, সমাজসেবী কামাল উদ্দিন প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত

ছিলেন সংঘের সম্মানিত সদস্য এবাদুর রহমান, সাবেক সভাপতি রেজওয়ান আহমদ, সহ-

সভাপতি মতিউর রহমান, সহ-সাধারণ সম্পাদক কাওছার আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক তারেক

মনোয়ার, শিক্ষা ও সাহিত্য সম্পাদক কবি কামরুল ইসলাম, ক্রীড়া সম্পাদক হুসেন মুহাম্মদ

এরশাদ, অর্থ-সম্পাদক সালমান আহমদ, সদস্য আব্দুল কাদির, আব্দুল্লাহ, নাবিল, নাহিয়ান,

সালমান, সইফ উদ্দিন,শাহরিয়ার,প্রমুখ।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us