শিরোনাম

আমের রাজধানী চাঁপাইনবাবগঞ্জ মুকুলের চেয়েছে আম গাছ ভালো ফলনের আশা

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শনিবার, মার্চ ৬, ২০২১ ১০:৫৬:২৫ পূর্বাহ্ণ
আমের রাজধানী চাঁপাইনবাবগঞ্জ মুকুলের চেয়েছে আম গাছ ভালো ফলনের আশা
আমের রাজধানী চাঁপাইনবাবগঞ্জ মুকুলের চেয়েছে আম গাছ ভালো ফলনের আশা

মোঃ মিজানুর রহমান শিবগঞ্জ প্রতিনিধি ‘

আয় ছেলেরা, আয় মেয়েরা /

ফুল তুলিতে যাই,

ফুলের মালা গলায় দিয়ে /

মামার বাড়ি যাই।

ঝড়ের দিনে মামার দেশে /

আম কুড়াতে সুখ,

পাকা জামের মধুর রসে /

রঙিন করি মুখ…।’

পল্লীকবি জসীম উদ্দিনের ‘মামার বাড়ি’ কবিতার পংক্তিগুলো বাস্তব রূপ পেতে বাকি রয়েছে আর মাত্র কয়েক মাস। তবে সুখের ঘ্রাণ বইতে শুরু করেছে। গাছে গাছে ফুটছে আমের মুকুল। চারদিকে ছড়িয়ে পড়ছে এই মুকুলের পাগল করা ঘ্রাণ। বাতাসে মিশে সৃষ্টি করছে মৌ মৌ গন্ধ। যে গন্ধ মানুষের মনকে বিমোহিত করে। পাশাপাশি মধুমাসের আগমনী বার্তা শোনাচ্ছে আমের মুকুল। চাঁপাইনবাবগঞ্জ আমের জন্য বিখ্যাত। এজন্য এ জেলাকে বলা হয় আমের রাজধানী। চাঁপাইনবাবগঞ্জ শিবগঞ্জ উপজেলা শনিবার সরেজমিনে দেখা যায়, আম বাগানের সারি সারি গাছে শোভা পাচ্ছে কেবলই মুকুল। এ যেন হলুদ আর সবুজের মহামিলন। মুকুলে ছেয়ে আছে গাছের প্রতিটি ডালপালা। চারদিকে ছড়াচ্ছে সেই মুকুলের সুবাসিত পাগল করা ঘ্রাণ। তবে আমের ফলন নির্ভর করছে আবহাওয়ার ওপর। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এ বছর আমের বাম্পার ফলনের আশা করছেন বাগান মালিকরা। এদিকে মৌসুমের শুরুতে আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় মুকুলে ভরে গেছে বাগানসহ ব্যক্তি উদ্যোগে লাগানো আম গাছগুলোতে। তবে বড় আকারের চেয়ে ছোট ও মাঝারি আকারের গাছে বেশি মুকুল ফুটেছে। সেই মুকুলের মৌ মৌ গন্ধে বাগান মালিকদের চোখে ভাসছে স্বপ্ন। আসিনা, গোপালভোগ, ল্যাংড়া, ফজলি, ক্ষিরসাপা অন্যতম। ইতিমধ্যে এসব গাছে মুকুল আসা শুরু হয়েছে। গাছের পুরো মুকুল ফুটে ছেয়ে গেছে বলে জানান বাগান মালিকরা। তারা জানান, মুকুল আসার পর থেকেই তারা গাছের প্রাথমিক পরিচর্যা শুরু করেছেন। মুকুল রোগ বালাইয়ের আক্রমন থেকে রক্ষা করতে স্থানীয় কৃষি বিভাগের পরামর্শ অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ওষুধ স্প্রে করছেন তারা। বাগান মালিকরা আরও জানান, বর্তমানে আবহাওয়া অনুকূলে রয়েছে। এ অবস্থা থাকলে এবার আমের বাম্পার ফলন বলে তারা আশা প্রকাশ করেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তথ্য অনুয়ারী, চাঁপাইনবাবগঞ্জে আম বাগান আছে ২৪ হাজার ৪৭০ হেক্টর জমিতে আর আম গাছ আছে প্রায় ১৯ লাখ।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us