শিরোনাম

ঈশ্বরদীর দাশুড়িয়ায় অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা, স্বামী গুরুত্বর আহত

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ২১, ২০২১ ৮:১৭:৩৩ অপরাহ্ণ
ঈশ্বরদীর দাশুড়িয়ায় অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা, স্বামী গুরুত্বর আহত
ঈশ্বরদীর দাশুড়িয়ায় অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা, স্বামী গুরুত্বর আহত

পাবনা প্রতিনিধিঃ

ঈশ্বরদী উপজেলার দাশুড়িয়ায় দূর্বৃত্ত্বের রামদায়ের উর্পযুপুরি কোঁপে শারমিন শিলা (৩২) নামে এক গর্ভবতী গৃহবধূ নিহত হয়েছে। হত্যাকারিকে আটক করে পুলিশের কাছে সোর্পদ করেছেন এলাকাবাসী।

মঙ্গলবার (২১ ডিসেম্বর) সকাল ৬টার দিকে পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার দাশুড়িয়া ইউনিয়নের এম এম উচ্চ বিদ্যালয়ের পাশে মুনসিদপুরে এঘটনা ঘটে।
নিহত গৃহবধূ ঈশ্বরদী পৌর এলাকার আকবরের মোড় মশুড়িয়াপাড়ার মৃত রহমত আলীর মেয়ে।
দাশুড়িয়া মুনসিদপুর এলাকার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ্ব হাবিবুর রহমান (হবি হাজীর)বড় ছেলে ব্যবসায়ী রানাউর রহমান রানার স্ত্রী । নিহত শিলা ১ সন্তানের জননী।
এলাকাবাসী- পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ২১ ডিসেম্বর মঙ্গলবার সকাল আনুমানিক ৬টার দিকে মুনসিদপুরে রান্নাঘরে রান্না করছিল গৃহবধূ শিলা। বাড়িতে লোকজন না থাকায় পূর্ব-শত্রুতার জের ধরে সকলের অগচরে চারতলায় প্রবেশ করে ওই দুষ্কৃতিকারী।
রান্নাঘরে ঢুকে গৃহবধু শিলাকে রামদা দিয়ে এলোপাথাড়ি ভাবে কোঁপাতে থাকে ।গৃহবধূ শিলা নিজের প্রাণ বাঁচানোর জন্য দৌড়ে বাড়ির ছাদে আশ্রয় নিয়ে। চিৎকার চেঁচামেচি করতে থাকে।

এসময় দুষ্কৃতিকারী ছাদে গিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। এসময় বাড়ির নিচে ছিল গৃহবধূ শিলার স্বামী। পরে তিনি দৌড়ে দুইজনের ধ্বস্তাধস্তিতে ছাঁদ থেকে নিচে পড়ে যায় ওই হত্যাকারী।
এসময় স্থানীয় এলাকাবাসী তাকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে আহত অবস্থায় ওই হত্যাকারীকে আটক করে।
এবং তার স্বামী ব্যবসায়ী রানা ইসলাম মারাত্নক ভাবে আহত অবস্থায় পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘাতক খুনি কে আহত অবস্থায় ঈশ্বরদী উপজেলা সাস্থ্য কমপ্লেক্সে পুলিশী হেফাজতে ভর্তি করা হয়েছে। নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us