শিরোনাম

এক প্রভাবশালী মহল নিরীহ মানুষদের সম্পত্তি দখলের চেষ্টা করছে।

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২৬, ২০২১ ৩:১৫:২৩ অপরাহ্ণ
এক প্রভাবশালী মহল নিরীহ মানুষদের সম্পত্তি দখলের চেষ্টা করছে।
এক প্রভাবশালী মহল নিরীহ মানুষদের সম্পত্তি দখলের চেষ্টা করছে।
মাসুদ রানা, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি। কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার বিদ্যানন্দ  ইউনিয়নের চতুরা মৌজার
মৃত গমির উদ্দিন ও গোলজার হোসেনের পরিবার নিজ পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত। জানা যায় জনৈক
প্রতিবেশী অনেক প্রভাবশালী হওয়ায় গমির ইদ্দিন ও গোলজার হোসেনের বাপ দাদার সম্পত্তি জোর করে
জবরদখল করে ভোগ করার  চেষ্টা করছে। এস এ খতিয়ান ৩৩৪ দাগ নং ৩৪১,৭০৪,২১২ মোট জমির
পরিমাণ ১৯.৫ শতাংশ এবং খতিয়ান ৪৮৮ দাগ নং ৬৭৯,৭০৫,৭০৯,৭১১ মোট জমির পরিমাণ ১২.৫
শতাংশ ও খতিয়ান নং ৭৩৭ দাগ নং ২০২,২০৪,২৩১ দাগে মোট জমির পরিমাণ ১৯.৫ শতাংশ।সর্বমোট
৫১.৫ শতাংশ জমির বৈধ কাগজ থাকা সত্বেও প্রকৃত জমির মালিক ভোগ করতে পারছে না। এব্যাপারে
প্রতিবেশী সেফারুল ইসলাম ও আমজাদ হোসেন বলেন আমরা স্থানীয়ভাবে কয়েকবার গ্রাম্য সালিশে
ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সহ মান্যগণ্য ব্যক্তিদের নিয়ে বসে জমির কাগজ পত্র দেখেছি, তাতে প্রকৃত জমির
মালিক গমির উদ্দিন ও গোলজার হোসেন গং। কিন্তু বর্তমানে তাইজুল ইসলাম, আব্দুল হক ও আব্দুল
আউয়াল জোরপূর্বক ও অন্যায়ভাবে তাদের পৈত্রিক সম্পত্তি ভোগ দখল করে খাচ্ছে। গোলজার হোসেনের
পুত্র রিয়াজুল ইসলাম বলেন আমরা গরীব বলে তারা আমাদের বাপ দাদার সম্পত্তি জোরপূর্বক ভোগ দখল
করে খাচ্ছে। ন্যায় বিচারের জন্য আমরা মানুষের ধারে ধারে ঘুরেছি কিন্তু প্রতিপক্ষ প্রভাবশালী হওয়ায়
আমরা ন্যায় বিচার পাইনি। তাই আমি মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর কাছে ন্যায় বিচার প্রার্থনা করছি।
এ ব্যাপারে দখলদার তাইজুল ইসলাম এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমাদের কাছে যারা জমি
পাবে বলে দাবি করেন, তাদের কাগজ পত্র যদি সঠিক থাকে অবশ্যই আমরা জমি তাদেরকে ছেড়ে দিব।
এ বিষয়ে বিদ্যানন্দ ইউনিয়ন চেয়ারম্যান তাজুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি
তাদের দুই গ্রুপ কে নিয়ে কয়েকবার গ্রাম্য শালিস করেছি দুই পক্ষের কাগজ পত্র দেখেছি তাতে এস এ খতিয়ান মূলে জমি পায় গমির উদ্দিন ও গোলজার হোসেন গং।
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us