শিরোনাম

কক্সবাজার পাহাড়তলীতে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে মারধর করার অভিযোগ!!

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : বুধবার, জুলাই ৭, ২০২১ ৬:১৮:৪১ অপরাহ্ণ
কক্সবাজার পাহাড়তলীতে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে মারধর করার অভিযোগ!!
কক্সবাজার পাহাড়তলীতে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে মারধর করার অভিযোগ!!

নিজস্ব প্রতিবেদক

কক্সবাজারের পাহাড়তলী ইসলামপুরে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী নাসিমা আক্তারক (২৫) নামে এক গৃহবধূকে মারধর করে গুরুতর জখম করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় কক্সবাজার সদর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন স্ত্রী নাসিমা আক্তার স্বামী আল নুর হোসেন (৩০) বিরুদ্ধে। গত ১৬ জুন বুধবার বিকেল ৫ ঘটিকার সময় কক্সবাজার পৌরসভার পাহাড়তলী ইসলামপুরের নুরুল আমিনের পুত্র আল নুর হোছেনের বাড়িতে স্বামীর, মা,বোন মিলে স্ত্রী নাসিমাকে ব্যাপক মারধর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়ার এমন অভিযোগ পাওয়া গেছে।

নাসিমার পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, পৌরসভার পাহাড়তলী ইসলামপুরের নুরুল আমিনের পুত্র আল নুর হোছেনের সাথে পারিবারিকভাবে বিগত প্রায় ৫ বছর পূর্বে পার্শ্ববর্তী ঝিলংজার দক্ষিণ মহুরী পাড়ার ৪ নং ওয়ার্ড়ের ছৈয়দ করিমের কন্যা নাসিমা আক্তারের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই আল নুর হোছেন তার স্ত্রীকে যৌতুকের দাবিতে প্রায়ই মারধর করতেন। এ নিয়ে বিভিন্ন সময়ে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সালিশ মীমাংসা করেন। জামাতা আল নুর হোছেনকে তার শাশুড়ী একাধিকবার আর্থিক সহযোগিতা করলেও জামাতা যৌতুকের দাবিতে ফের নাসিমাকে মারধর শুরু করেন।

স্বামীর এমন নিষ্ঠুর অত্যাচার সইতে না পেরে কয়েক মাস পূর্বে নাসিমা তার বাপের বাড়ি চলে আসেন। আরও অভিযোগ পাওয়া যায়,স্ত্রী নাসিমার অনুমতি ছাড়া স্বামী আল নুর আরও একটা বিবাহ করে, সে কথা বললে তাকে মারধর করা শুরু করে। এরপর গত কয়েকদিন পূর্বে শ্বশুর বাড়ির লোকজন এসে আবার নাসিমাকে স্বামীর বাড় তে ফিরিয়ে নিয়ে যান। গত ১৬ জুন বুধবার ৫ ঘটিকার সময় ঘরে স্বামী আল নুর হোছেন স্ত্রীকে খুন করার উদ্দেশ্যে এলোপাতাড়ি মারধর করতে থাকেন। এ সময় নাসিমা চিৎকারে আশপাশের লোকজন দৌড়ে এলে আল নুর হোছেন সেখান থেকে পালিয়ে যান। নাছিমার শরীরের বিভিন্ন স্থানে বেশ মারধরের চিহ্ন রয়েছে স্বামীর।

এ বিষয়ে নাসিমার মা রহিমা বেগম বলেন, বিভিন্ন সময় আমার মেয়েকে যৌতুকের জন্য অত্যাচার নির্যাতন করে একাধিকবার মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়েছে আমার জামাতা আল নুর হোছেন। কয়েক মাস আগেও সে ২ ০০০০ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবি করে। কিন্তু আমার মেয়ে টাকা দিতে অস্বীকার করায় সে আমার মেয়েকে শারিরীকভাবে নির্যাতন করে। এরপর আবার যৌতুকের দাবিতে আমার মেয়েকে মারাত্মক মারধর করেছে সে। আমার মেয়ের অনুমতি ছাড়া দুইটা সন্তান রেখে সে আবারও বিয়ে করেছে। আমি এর বিচার চাই।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us