শিরোনাম

কলাপাড়ায় এক ইউপি মেম্বরকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে প্রতিপক্ষ গ্রুপ ॥

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : মঙ্গলবার, এপ্রিল ১২, ২০২২ ১২:০৯:০২ পূর্বাহ্ণ
কলাপাড়ায় এক ইউপি মেম্বরকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে প্রতিপক্ষ গ্রুপ ॥
কলাপাড়ায় এক ইউপি মেম্বরকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে প্রতিপক্ষ গ্রুপ ॥

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি  ঃ  কলাপাড়ায় ইব্রাহিম (৫০) নামের এক ইউপি
মেম্বরকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। সোমবার দুপুর ১২টার দিকে
টিয়াখালী ইউনিয়নের পশ্চিম টিয়াখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা তাকে
উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসাপাতালে ভর্তি করেছে। ইব্রাহিম ওই ইউনিয়নের ৪
নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বর। সূর্যমূখীর বাগান থেকে টাকা চুরি হয়ে যাওয়াকে
কেন্দ্র করেই তার উপর হামলা চালানো হয়েছে বলে জানায় ইউপি সদস্যের পরিবার।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রবিবার কয়েকজন দর্শনার্থী সিক্সলেন সংলগ্ন
পশ্চিম টিয়াখালী গ্রামের সূর্যমূখী বাগানে ঘুরতে যায়। এসময় দর্শনার্থীরা
সড়কের পাশে ব্যাগ রেখে বাগানের ভিতরে গেলে তাদের ওই ব্যাগসহ ৫৬০ টাকা
চুরি হয়ে যায়। পরে বাগান থেকে বের হলে স্থানীয় বেল্লাল, জুলহাস ও ইউনুস
নামের তিন কিশোর জানায় তাদের টাকা সাগর শিকদার নামের এক যুবক নিয়েছে।
সাগরের নাম বলায় দুপুর বারোটার দিকে তার পিতা শহীদ সিকদার ওই তিন কিশোরকে
বেধড়ক মারধর করে। বিষয়টি নিয়ে সোমবার ২য় দফায় কিশোর জুলহাসের পিতা
তোফাজ্জেলকে মারধর করে শহীদ সিকাদারসহ তার স্বজনরা। জানা যায়, নির্বাচনের
সময় তোফাজ্জেল ইব্রাহিমের সাপোর্ট করেছে। ইব্রাহিম তোফাজ্জেলকে মামলা
করার পরমার্শ দিয়েছে বলে সন্দেহ করে ৩য় দফায় দুপুর ১২টার দিকে শহীদ
সিকদার, তার ছেলে সাগর সিকদার, চাচাতো ভাই মোজাম্মেল সিকদার ও রুবেল গাজি
ওই ইউপি মেম্বর ইব্রাহিমের বাড়ির সম্মুক্ষে লাঠি সোটা নিয়ে অবস্থান নেয়।
পরে সে ঘর থেকে বের হলে তাকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করা হয়। স্থানীয়রা
তাৎক্ষনিক ওই ইউপি মেম্বরকে উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

ইউপি সদস্য ইব্রাহিম হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে অ¯্রুসিক্ত কন্ঠে এ
প্রতিনিধিকে জানান, হালিম সিকদার আমার সঙ্গে নির্বাচনে হেরেছে। শহীদ
সিকদার তার ভাতিজা। নির্বাচনের জেরেই আমাকে এভাবে মারধর করা হয়েছে মূলত
তা না হলে এই তুচ্ছ ঘটনায় এভাবে আমার উপর আক্রমন করার কথা না।

অভিযুক্ত শহীদ সিকদারের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে
পাওয়া যায়নি। তার চাচাচো ভাই মোজাম্মেল সিকদার এ প্রতিবেদককে জানায়, আমার
বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট। এ ঘটনার সময় আমি স্কুলে
ছিলাম।

কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: জসিম গনমাধ্যমকে জানান,
ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এখনও অভিযোগ পাইনি। লিখিত অভিযোগ পেলে
আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে তিনি জানান।

Spread the love
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us