শিরোনাম

কলাপাড়ায় গৃহবধুকে ধর্ষন চেষ্টা ও ছুরিকাঘাতের অভিযোগে মামলা ॥

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২৬, ২০২০ ৬:২০:৩৫ অপরাহ্ণ
কলাপাড়ায় গৃহবধুকে ধর্ষন চেষ্টা ও ছুরিকাঘাতের অভিযোগে মামলা ॥
কলাপাড়ায় গৃহবধুকে ধর্ষন চেষ্টা ও ছুরিকাঘাতের অভিযোগে মামলা ॥

কলাপাড়ায় গৃহবধু ও
এক সন্তানের জননী জিদনী (২০)কে ধর্ষনের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে ছুরিকাঘাতের
অভিযোগ পাওয়া গেছে স্থানীয় এক লম্পটের বিরুদ্ধে। গুরুতর আহতাবস্থায় ওই
গৃহবধুকে স্বজনরা উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করেছে। বালিয়াতলী
ইউপির লেমুপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গৃহবধু নিজেই বাদী হয়ে বুধবার
কলাপাড়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগের ভিত্তিতে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে তাকে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলো
এলাকার বাসীন্দা ভুট্টো মুন্সী (৪৫)। তিনি প্রস্তাবে রাজি না হয়ে বিষয়টি
তার স্বামীকে জানান। ঘটনারদিন তার মৎস্য শিকারী স্বামী সাগরে থাকায় ২
বছরের শিশু সন্তানসহ ঘরে ছিলেন। এ সুযোগে স্বামীর অনুপস্থিতিতে লম্পট
ভুট্রো মুন্সি হঠাৎ ঘরের সামনে এসে দুয়ার খুলতে বলে । ভয়ে কোন কথা না বলে
চুপ করে থাকে। এসময় ধাক্কা দিয়ে ঘরের দরজা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে
গৃহবধুর উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে এবং বিভিন্ন স্পর্সকাতর স্থানে হাত দেয়।
একপর্যায় পরিধেয় জামা কাপড় ছিড়ে ফেলে ও ধর্ষনে চেষ্টা চালায় এবং ছোট্ট
মেয়েকে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেয়।

অভিযোগে তিনি আরো উল্লেখ করেন, ধস্তাধস্তির এক পর্য়ায় তার কাছে থাকা ছুরি
দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে আমার গলার ছুড়ি চালালে তিনি হাত দিয়ে ধাক্কা দিলে
ছুড়ি এসে মাথায় লাগলে মাথা কেটে রক্ত ঝড়তে থাকে। এক পর্যায় অজ্ঞান হয়ে
যায়। পরে ভুট্রো মুন্সি ও তার সাথে থাকা মনির তালুকদার (৪৫) নাইম
তালুকদার (২০) রুবেল (৩৫) সহ আরো কয়েকজনকে নিয়ে পালিয়ে গেলে স্বজনরা এসে
উদ্ধার করে। ঘটনার সময় ভুট্রো মুন্সির সাথে থাকা লোকজন বাহিরে পাহারায়
ছিলেন বলে তিনি অভিযোগে উল্লেখ করেছেন।

কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খন্দকার মো: মোস্তাফিজুর রহমান
জানান, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে সরেজমিনে
তদন্ত শেষে  আইনানুযায়ী ব্যবস্থা  গ্রহন করা হবে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us