শিরোনাম

কুমিল্লায় ভাগ্নিকে সেলিব্রেটি’ করার প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : মঙ্গলবার, জানুয়ারি ৪, ২০২২ ৯:৫১:০৬ অপরাহ্ণ
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীকে যৌন নিপীড়ন ও বিবস্ত্র ভিডিও ধারণের ঘটনায় দুই শনাক্ত
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীকে যৌন নিপীড়ন ও বিবস্ত্র ভিডিও ধারণের ঘটনায় দুই শনাক্ত

কুমিল্লায় ‘ইউটিউব সেলিব্রেটি’ করার প্রলোভনে এক স্কুলছাত্রীকে (১৫) ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় এক আইনজীবীকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

সোমবার রাতে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ সময় ওই বাসা থেকে নির্যাতিত স্কুল ছাত্রী, তার ভাই এবং আরেক নারীকে উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার সদর দক্ষিণ থানায় এ ঘটনায় মামলা হয়েছে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তার আইনজীবী জানিয়েছেন, নির্যাতিতার পরিবার তাঁর পূর্বপরিচিত। তিনি ভিকটিমকে ভাগ্নি এবং তার ভাইকে মামা বলে ডাকতেন। তিনি তাদের পড়াশোনা ও অন্যান্য ব্যাপারে সহযোগিতার নাম করে ভিকটিমের বাড়িতে নিয়মিত যাতায়াত করতেন। এক পর্যায়ে তিনি ভিকটিমের কাছে নিজেকে একজন জনপ্রিয় ইউটিউবার হিসেবে পরিচয় দিয়ে বলেন, তিনি বিভিন্ন ছেলে-মেয়েকে ইউটিউব সেলিব্রেটি করার মাধ্যমে তাদেরকে আর্থিকভাবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন।

২৫ নভেম্বর মেয়েটির পরিবারকে না জানিয়ে স্কুল থেকে তাকে নিয়ে যান ওই আইনজীবী। এক পর্যায়ে মধ্যম আশ্রাফপুরে তাঁর ভাড়া বাসায় নিয়ে ভিকটিমকে ইউটিউব সেলিব্রেটি, ভালোভাবে পড়াশোনা করানোসহ বিভিন্ন প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণ করেন। ভিকটিমের মা বিষয়টি টের পেয়ে তাদেরকে নিয়ে গ্রামের বাড়িতে চলে যান। এরপর তিনি প্রলোভন দিয়ে গত ১৭ ডিসেম্বর ভিকটিম ও তার ভাইকে ফের তাঁর বাসায় নিয়ে আসেন।

মেজর মোহাম্মদ সাকিব হোসেন জানান, এ দুজনকে বাসায় এনে আটকের পর জাহিদ চৌধুরী তাঁর হীন স্বার্থ বাস্তবায়নের জন্য আরেক নারীকে (৩২) চাকরি দেওয়ার নাম করে তাঁর ওই ভাড়া বাসায় নিয়ে আসেন। এক পর্যায়ে ভিকটিমের ভাই (২০) ও ওই নারীকে একটি রুমে আবদ্ধ রেখে তাঁদেরকে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনে বাধ্য করেন। পরে ভিকটিমকে বেশ কয়েক দিন ধরে ধর্ষণ করেন তিনি। ভিকটিমের ভাই এতে বাধা প্রদান করতে চাইলে আইনজীবী তাঁকে হুমকি দিয়ে বলেন, ওই নারীর সঙ্গে তাঁর শারীরিক সম্পর্কের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেবেন।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃত আইনজীবী এসব অপরাধের কথা স্বীকার করেছেন বলে জানান তিনি।

Spread the love
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us