শিরোনাম

চরি কুটে প্রেমিকের কঠিন শাস্তির চেয়ে প্রেমিকা আত্মহত্যা

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : সোমবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০২১ ৮:১৬:০৯ অপরাহ্ণ
চরি কুটে প্রেমিকের কঠিন শাস্তির চেয়ে প্রেমিকা আত্মহত্যা
চরি কুটে প্রেমিকের কঠিন শাস্তির চেয়ে প্রেমিকা আত্মহত্যা

চরি কুটে প্রেমিকের কঠিন শাস্তির চেয়ে প্রেমিকা রাবেয়া আত্মহত্যা । রাবেয়া শরীয়তপুর জেলার ডামুড্যা উপজেলার কনেশ্বর ইউনিয়নের সুতলকাঠি গ্রামের বিল্লাল সরদারের মেয়ে। তিনি আত্মহত্যার আগে একটি চিরকুট লিখে গেছেন। সেখানে তিনি জানিয়েছেন, ‘তার মৃত্যুর জন্য দায়ী প্রেমিক জাকির হোসেন।’ জাকিরও একই এলাকার বাসিন্দা বলে জানা গেছে।

চিরকুটে লেখা ছিল, ‘আমি রাবেয়া, আমার মৃত্যুর জন্য দায়ী জাকির, জাকিরের মা-বাবা, বড় ভাই-ভাবি ও জাকিরের বোন। তারা সবাই আমার মৃত্যুর জন্য দায়ী। জাকির আমাকে এই পৃথিবীতে বাঁচতে দেয়নি। আমি তার কঠিন শাস্তি চাই। আমাকে জাকির পৃথিবীতে থাকতে দেয়নি। আমিও চাই না যে জাকির পৃথিবীতে বাঁচুক। আমি জাকিরের মরণ চাই। সবার কাছে আমার একটা আবেদন- আমি জাকিরের কঠিন শাস্তি চাই। আমাকে মরে যেতে বাধ্য করেছে জাকির।’

রাবেয়ার বোনের শ্বশুর ফারুখ শাহ বলেন, ‘রাবেয়া আমার বেয়াইর মেয়ে হয়। আমরার বাড়িতে বেড়াতে আসে রাবেয়া। গত রাতে একসঙ্গে আমরা রাতে খাবার খাই। পরে ঘুমিয়ে পড়ি। আমার মেয়ে চিৎকার করলে আমি দৌড়ে আসি। পরে এসে দেখি রাবেয়া ফ্যানের সঙ্গে ঝুলছে। তার পাশেই একটি চিরকুট লিখে রেখে গেছে।’

ডামুড্যা থানার ওসি শরীফ আহমেদ বলেন, ‘আমরা খবর পেয়ে লাশটি উদ্ধার করি। পরে লাশ শরীয়তপুর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছি।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us