শিরোনাম

জেলা শাসক ও পুলিশ সুপারের বিরুদ্ধে

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : সোমবার, জুন ২২, ২০২০ ৯:০২:৫৩ অপরাহ্ণ
জেলা শাসক ও পুলিশ সুপারের বিরুদ্ধে
জেলা শাসক ও পুলিশ সুপারের বিরুদ্ধে

SUMON GANGULY: স্টাফ রিপোর্টার: জেলা শাসক ও পুলিশ সুপারের বিরুদ্ধে এবার ” প্রিভিলেজ মোশন” আনতে চলেছেন রানাঘাটের বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার। সোমবার রানাঘাটে দলীয় দফতরে এক সাংবাদিক সম্মেলন করে নদিয়ার জেলা শাসক বিভু গোয়েল ও রানাঘাট পুলিশ জেলার সুপার ভি,এস অনন্ত কুমারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন তিনি।

লক ডাউন ও আম্ফান পরবর্তী পরিস্থিতিতে রানাঘাট লোকসভার একাধিক জায়গায় রেশনের চাল চুরির ঘটনা ঘটে, এই অভিযোগ নিযে প্রশাসনকে লিখিত অভিযোগ জানলেও তদন্ত পর্যন্ত না করে চুপ করে বসে থেকেছে বলে মত বিজেপি সাংসদের। গোটা বিষয় নিযে প্রশাসন কোন ব্যাবস্থা ই নেয়নি বলে অভিযোগ সাংসদের। তিনি বলেন, ” এই ধরনের একাধিক চুরির ঘটনা আমরা প্রশাসন কে জানাই। তবে পুলিশ দোষীদের আড়াল করে অভিযোগকারীদের বিরুদ্ধেই পাল্টা কেস দিচ্ছে।

এমনকি আমার বিরুদ্ধেও পুলিশ কেস দিয়েছে।” এমনকি এফ আই আর করতে গেলে তা নেয়নি বলে অভিযোগ বিজেপি সাংসদের। তার বক্তব্য,” আসলে এই চাল চুরির ঘটযায় তৃণমূলের নেতারা জড়িত। তাই পুলিশ তদন্ত কোন তদন্ত করতে ভয় পাচ্ছে ।” রেশনের চাল ঘুর পথে কালোবাজারি হলেও প্রশসন কোনো ব্যাবস্থা নিচ্ছে না বলে মত বিজেপি সাংসদের। পাল্টা তার যুক্তি’, ” আসলে গোটা রাজ্য জুড়েই এই লুঠ চ্লছে। তৃণমূলের নেতার কোটি কোটি টাকা কামাই করছে আর পুলিশ সেই চোর দের ই আড়াল করছে।” এই রেশনের চাল চুরি নিযে নির্দিষ্ট তথ্য প্রমান নিযে রানাঘাট কোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করে বিজেপি। গেরুয়া শিবিরের দাবি, গোটা বিষয় টি নিযে অভিযুক্ত দের বিরুধ্যে এফ আই আর করার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। এমনকি সেই নির্দেশ অমান্য করে ” জি ডি ” করেই দায় সেরেছে প্রশাসন বলে এদিন দাবি করেন সাংসদ ।

তিনি বলেন, “” আমরা নির্দিষ্ট সময়সীমা পর্যন্ত দেখব। এরপরও যদি প্রশাসন ব্যাবস্থা না নেয় তাহলে একজন সাংসদ হিসাবে আমি সংসদের দরজায় যাব। জেলা শাসক ও পুলিশ সুপারের বিরুধ্যে প্রিভিলেজ আনব।” তবে এখানেই শেষ না। চল চুরির অভিযোগ নিযে সিবি আই তদন্তের দাবি করেছেন রানাঘাটের সাংসদ।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর