শিরোনাম

তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা নারীকে মারপিট! থানায় অভিযোগ দায়ের

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শনিবার, নভেম্বর ২০, ২০২১ ১০:৩১:৪৮ অপরাহ্ণ
তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা নারীকে মারপিট! থানায় অভিযোগ দায়ের
তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা নারীকে মারপিট! থানায় অভিযোগ দায়ের
আবু রায়হান, জয়পুরহাটঃ
জয়পুরহাটে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ৪ মাসের  অন্তঃসত্ত্বা শামিমা নামের এক নারীকে মারপিট করায় থানায় অভিযোগ দায়ের।
ঘটনাটি ঘটেছে জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি উপজেলার আওলাই ইউনিয়নের বিন্নিপাড়া গ্রামে।
ভুক্তভোগী ও থানায় দায়েরকৃত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গত ১৮ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল ৭ টায় মাটের ধান কাটার পরে জ্বালানি কাজে ব্যবহার করার জন্য খরের অবশিষ্ট  অংশ গ্রাম্য ভাষায় লারা খাটাকে কেন্দ্র করে বিন্নিপাড়া গ্রামের বাসিন্দা আলাউদ্দিনের স্ত্রী শাহানাজ বেগমকে একই গ্রামের মিজানুর হোসেন (২৮) এর স্ত্রী মর্জিনা অকথ্য ভাষায় গালাগালি করার এক পর্যায়ে শাহানাজ বেগমের চুলের মুটি ধরে মারপিট শুরু করে।
এ সময়ে শাহানাজ বেগমকে বাঁচাতে তার পুত্রবধু ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা শামিমা এগিয়ে আসলে হঠাৎ করে মিজানুর ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তার পেটে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে কৃষি কাজে ব্যবহিত কোদালের ডাট দিয়ে মারপিট শুরু করলে তার চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে মিজানুর ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।
বিবাদ শুরু করে  বিন্নিপাড়া গ্রামের মান্নানের ছেলে মিজানুর (২৮) এর স্ত্রী মর্জিনা একই গ্রামের আলাউদ্দিনের স্ত্রী শাহানাজ বেগমকে প্রথমে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে পরে চুলের মুটি ধরে মারপিট শুরু করলে শাহানাজের পুত্র বধু আগাতে গেলে ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা পুত্র বধু শামিমা কে হঠাৎ করে মিজানুর ঘটনাস্থলে এসেই তার পেটে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে কোদালের ডাট দিয়ে মারপিট শুরু করলে তার চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে মিজানুর ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।
পরে ঘটনার দিন সন্ধায় বিষয়টি নিয়ে গ্রামের স্থানীয় মাতবররা শালিসে বসলে মিজানুর অনুপস্থিত থাকায় পরদিন শুক্রবার সন্ধায় আবারও শালিস বসলে সাক্ষী প্রমান সাপেক্ষে মিজানুরকে ১ হাজার টাকা জরিমানা করা হলে এই সিদ্ধান্তে অসন্তুষ্ট হয়ে ভুক্তভোগীরা থানায় শনিবার (২০ নভেম্বর) পাঁচবিবি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।
৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা শামিমা জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে বর্তমানে তার শশুর বাড়ি বিন্নিপাড়াতে রয়েছেন।
পাঁচবিবি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) পলাশ চন্দ্র দেব এর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, এ ঘটনার বিষয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ এসেছে, তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us