শিরোনাম

দাড়ি ‘কামিয়ে ফেলা’র শর্তে চাকরি,

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : মঙ্গলবার, মার্চ ১৬, ২০২১ ২:৪০:৩৩ পূর্বাহ্ণ
দাড়ি ‘কামিয়ে ফেলা’র শর্তে চাকরি,
দাড়ি ‘কামিয়ে ফেলা’র শর্তে চাকরি,

দাড়ি থাকার কারণে দেশের অন্যতম বৃহৎ রিটেইল ব্র্যান্ড আড়ংয়ে চাকরি পাননি এক যুবক-এমন অভিযোগ তোলার পর সিলেটে আড়ংয়ের বিক্রয়কেন্দ্রের সামনে বিক্ষোভ করেছেন স্থানীয় একদল বাসিন্দা। পরে আড়ং এক বিবৃতি দিয়ে ওই যুবকের সঙ্গে ঘটে যাওয়া ঘটনাকে দুঃখজনক বলে উল্লেখ করেছে।

সামাজিক যোগাযোগেরমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া আট মিনিটের একটি ভিডিওতে দেখা যায়, এক যুবক নিজেকে ইমরান হোসেন ইমন নামে পরিচয় দিয়ে বলছেন, তিনি আড়ংয়ে বিক্রয়কর্মীর একটি নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলেন। মুখে মাস্ক পরেই তিনি সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন। সাক্ষাৎকারগ্রহীতারা তার সাথে সন্তুষ্ট বলে তার মনে হয়েছিল।

কিন্তু একপর্যায়ে সাক্ষাৎকারগ্রহীতাদের চাহিদা মোতাবেক তিনি মাস্ক খোলেন এবং তার মুখভর্তি দাড়ি প্রকাশ পায়। তখন সাক্ষাৎকারগ্রহীতারা তাকে বলেন, তাদের নীতিমালা অনুযায়ী তারা দাড়িওয়ালা ব্যক্তিদের বিক্রয়কর্মী হিসেবে নিয়োগ দিতে পারেন না।

ভিডিওতে ওই যুবক বলেন, ‘তারা বলল আপনি যদি ক্লিন শেভ করতে পারেন, তাহলে আপনার জবটা আমরা এখানে কনফার্ম করতে পারব।’

বিক্ষোভকারীদের একজন মুখপাত্র শাহ মোমশাদ আহমেদ বলেন, তারা বিক্ষোভ থেকে বেশ কিছু দাবি তুলে ধরেছেন, যার মধ্যে আছে দাড়ি রাখা নিয়ে আড়ংয়ের যদি কোনো নীতিমালা থাকে সেটা পরিবর্তন করতে হবে। চাকরি দেওয়ার ক্ষেত্রে সব ধর্মের প্রতি সম্মান দেখাতে হবে এবং এই ঘটনার জন্য সুস্পষ্টভাবে ক্ষমা চাইতে হবে। ভবিষ্যতে যাতে এই ধরনের ঘটনা না ঘটে সেটা নিশ্চিত করতে হবে। তিনি বলেন, ‘তারা ক্ষমা না চাওয়া পর্যন্ত আড়ংয়ের পণ্য বর্জন করার আহ্বান জানাবেন।’

আজ দিনভর বিপুল সংখ্যক মানুষ ওই ভিডিওটি ফেসবুকে শেয়ার করেছেন এবং তারা ‘বয়কট আড়ং’ হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করছেন। ভিডিওটি ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যাওয়ার পর সিলেটে আড়ংয়ের বিক্রয়কেন্দ্রের সামনে বিক্ষোভ দেখিয়েছে সিলেটের সচেতন আলেম সমাজের ব্যানারে একদল স্থানীয় বাসিন্দা।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us