শিরোনাম

‘দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে সরকারী ব্যাংকের অবদান অনস্বীকার্য’

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : বুধবার, নভেম্বর ১৮, ২০২০ ১২:১১:০৩ অপরাহ্ণ
‘দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে সরকারী ব্যাংকের অবদান অনস্বীকার্য’
‘দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে সরকারী ব্যাংকের অবদান অনস্বীকার্য’

মঙ্গলবার ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলায় শোল্লা বাজারে রূপালী ব্যাংক লিমিটেডের ৫৭৯তম শোল্লা বাজার শাখা ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারী শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, সরকারী ব্যাংকগুলো না থাকলে বেসরকারী খাত উঠে দাঁড়াতে পারত না। দেশের বেসরকারী খাত প্রতিষ্ঠিত হয়েছে সরকারী ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে।

রূপালী ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান মনজুর হোসেন, এমপি’র সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মের এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ব্যাংকের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এ্যান্ড সিইও মোঃ ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ।

সালমান এফ রহমান বলেন, আমাদের দেশ বর্তমানে যে অবস্থানে এসে পৌঁছেছে সেটা একমাত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কল্যাণে। ওয়ান ইলেভেনের পর কেউ যদি আমাকে বলত, ১০-১১ বছর পর বাংলাদেশের অর্থনীতি বর্তমান অবস্থায় পৌঁছাবে তাহলে আমি তা বিশ্বাস করতাম না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশের অর্থনীতিকে যেখানে নিয়ে এসেছেন তাতে বাংলাদেশ আজ বিশ্ব অর্থনীতির রোল মডেল। তিনি আমাদের সবসময় সঠিক দিক-নির্দেশনা দিচ্ছেন- কখন কি করতে হবে।

সালমান এফ রহমান বলেন, অনেক সময় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তকে আমাদের কাছে সঠিক মনে হয়নি। তবে পরে দেখা যায়, তার সিদ্ধান্তই সঠিক ছিল। প্রধানমন্ত্রী যখন ব্যাংক সুদে ৯ শতাংশের সীমা নির্ধারণ করে দিলেন তখন আমাদের মনে হয়েছিল, তার সিদ্ধান্তটি ভুল। আমাদের মনে হয়েছিল, ৯ শতাংশ সুদহার বেধে দিলে ব্যাংক খাত ধ্বংস হয়ে যাবে। ব্যাংক খাতের সব উদ্যোক্তারা আমাকে এসে ধরেছিল বিষয়টি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলার জন্য। বিষয়টি নিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আমি কথাও বলেছিলাম। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী আমাদের বলেছিলেন বাস্তবায়ন করার জন্য। বাকিটা তিনি দেখার আশ্বাস দিয়েছিলেন। ৯ শতাংশ সুদহার বাস্তবায়ন করার পর আমরা দেখলাম, প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তই সঠিক ছিল। ছয়-নয় সুদহার বাস্তবায়ন করার পর কোন ব্যাংকেরই খুব সমস্যা হয়নি। বরং ব্যবসায়ীরা ৯ শতাংশ সুদে ঋণ নিয়ে ব্যবসা করতে পেরেছে। এই সিদ্ধান্তটি সঠিক সময়ে নেয়া হয়েছিল বিধায় ব্যবসায়ীরা এই করোনা মহামারীর সময়েও খুব বেশি সমস্যায় পড়েনি। যে কারণে বাংলাদেশের অর্থনীতি টিকে থাকতে পেরেছে।

‘সরকারী খাতের রূপালী ব্যাংক পর্ষদ চেয়ারম্যান মনজুর হোসেন ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদের নেতৃত্বে ভাল করছে’ উল্লেখ করে সালমান এফ রহমান বলেন, মাসুদ যখন সোনালীতে ছিল তখনও অনেক ইনোভেটিভ আইডিয়া বাস্তবায়ন করেছে। এখন রূপালীতেও বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে।

সভাপতির বক্তব্যে রূপালী ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান মনজুর হোসেন, এমপি বলেন, করোনার মধ্যেও দেশের অর্থনীতি টিকে রয়েছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দক্ষ নেতৃত্বের কারণে।

স্বগত বক্তব্যে ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মোঃ ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ বলেন, আমরা মিল্কভিটার মাধ্যমে ১ হাজার দুগ্ধ খামারিকে ১০ কোটি টাকা ঋণ দিয়েছি। উদ্বৃত দুধ বিক্রির জন্য আমরা টাকা দিয়েছি।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর