শিরোনাম

প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ের প্রলোভন, ধর্ষণ করলো ফুফা!

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : সোমবার, আগস্ট ২৬, ২০১৯ ৫:৪৩:৩১ পূর্বাহ্ণ
প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ের কথা বলে এক কিশোরীকে তার ফুফা ধর্ষণ করেছে। রোববার ধামরাই থানায় এঘটনায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
অভিযুক্ত ওই ফুফার নাম আলমগীর (৫০)। সে ওই ইউনিয়নের ঘোড়াকান্দার হায়দার আলীর ছেলে। পেশায় সে প্রাইভেটকারের ড্রাইভার।
ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী বলেন, গত বুধবার প্রেমিক নাহিদের সঙ্গে বিয়ে দেয়ার নাম করে ফুফা আলমগীর তাকে নিজের বাড়িতে ডেকে নেয়। আমি বাইরে যেতে চাইলেও ঘরের দরজা বন্ধ করে ধর্ষণ করে।
ভুক্তভোগীর খালা বলেন, ঘটনার পর আলমগীর ওই ছাত্রীকে বাড়িতে পৌঁছে দেয়। দুদিন পর মেয়েটি এই ঘটনা তার মাকে জানায়।
তার মা বলেন, এই ঘটনা শোনার পর আমরা চেয়ারম্যান, মেম্বরকে জানাই। তারা মিমাংসার কথা বলেন। আলমগীরকে আটক করা হলেও সুয়াপুর ইউনিয়নের মেম্বর প্রভাত মালো তাকে ছেড়ে দেয়।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত মেম্বর প্রভাত মালো বলেন, ঘটনাটা জানি। দুইজনকেই আমি চিনি। আমরা মিমাংসার কথা বলেছিলাম। তবে তারা চলে যায়।
সুয়াপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান সোরহাব বলেন, আমার কাছে অভিযোগ জানায়। আমরা মিমাংসার কথা বলি। তবে তারা কোন মীমাংসায় যায়নি।
আলমগীরকে পুলিশে সোপর্দ না করার বিষয়ে তিনি বলেন, এটা আমাদের এখতিয়ার না।
ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, ভুক্তভোগী ও তার মা থানায় এসে লিখিত অভিযোগ করেছেন। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us