শিরোনাম

ফেনীর দাগনভূঁঞায় মেয়ের রডের আঘাতে মাও শাশুড়ির মৃত্যু, আহত-৩

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : বুধবার, অক্টোবর ২৬, ২০২২ ৩:৪০:১৫ অপরাহ্ণ

পেয়ার আহাম্মদ চৌধুরী, ফেনী জেলা প্রতিনিধি: ফেনীর দাগনভূঁঞায় বিবি ফাতেমা (৬৫) নামে এক বৃদ্ধার মরদেহ উদ্ধার ও অভিযুক্তকে আটক করেছে দাগনভূঁঞা থানার পুলিশ।

নিহত বিবি ফাতেমা উপজেলার সদর ইউনিয়ন ১নং ওয়ার্ড ছোট মালিপুর গ্রামের (আকু সর্দার বাড়ির) মৃত ফজলুল হকের স্ত্রী।

জ্বিনে আছর করে মৃত্যু ও হতাহতের বিষয়টি জানা গেলেও পুলিশ বিষয়টি গুরুত্বসহকারে তদন্ত করছেন বলে জানান, সোনাগাজী দাগনভূঁঞা এএসপি সার্কেল মাশকুর রহমান, দাগনভূঁঞা থানার ওসি হাসান ইমামসহ পিবিআই।

সোমবার (২৪ অক্টোবর) রাতে মা এবং মেয়ে জ্বিন সংক্রান মানসিকতায় একে অপরকে রক্তাক্ত জখম করেন এবং ফাতেমা বেগমকে নিজ বাড়িতে মেয়েরা হত্যা করে। আহত তিনজনকে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে ।
আহতরা হলেন, রোকসানা আক্তার ( ৪০) খালেদা আক্তার (২৩) ও ফাহমুদা সুলতানা (১৭)।

এদিকে মরদেহ উদ্ধার করে ফেনী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতি বিরাজ করছে।একজনের মৃত্যু ও তিনজন আহত হওয়ার ঘটনাকে রহস্যজনক মনে করছেন স্থানীয় তারা। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে জ্বিন ধরাকে কেন্দ্র করে যার সূত্রপাত নিহতের নাতনী। যাকে চিকিৎসা করানোর কথা বলে এ বাড়ি (নানার বাড়িতে) নিয়ে আসেন। ৬ সদস্যের সংসারে কোন পূরুষ নেই। নিহতের একমাত্র ছেলে সে প্রবাসে রয়েছেন। চারজন মেয়ে (বিবাহিত) মাসহ তাদর সংসার। থাকার ঘরের নির্মাণ কাজ চলছে। বাড়িতে কোথায় থেকে জ্বিন আসলো? কেন বোনে বোনে মারামারি? অতঃপর দুটি বৃদ্ধ মা কে নির্মম হত্যা! এ নিয়ে নানান প্রশ্ন যদিও বোনের শাশুড়িকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে সেনবাগ (এরিয়া) যেখানে বড় মেয়ের শশুর বাড়ি। তিনজন রক্তাক্ত শরীর নিয়ে সকালে পাশে মসজিদের সামনে বসে আবোল তাবোল প্রলাপ বকছিলেন। স্থানীয় লোকজন জনপ্রতিনিধি ও থানা প্রশাসনকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে।

এদিকে দাগনভূঁঞা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক আহতদের সিজোফ্রেনিয়া রোগী বলে ধারণা করছেন।

তবে এমন ঘটনা জ্বিন, ভূত বিষয়ে কোন নাটকীয়তা নয়তো? নাকি অর্থের লোভ সংক্রান্ত মা এবং মেয়ের মাঝে দ্বন্দ্ব এ নিয়ে সুষ্ঠ তদন্তের দাবি জানান স্থানীয়রা। একটি হত্যাকান্ড চারটি পরিবার ধ্বংস। এত বড় ঘর আজ জনশূন্য। কি কারণে এমন মর্মান্তিক মৃত্যু তদন্ত সাপেক্ষ সঠিক কারণ উদঘাটন হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন সচেতনমহল। জ্বিন ভূত হত্যা করে এটা প্রথম জানলাম কিন্ত একজন বয়স্ক মাকে কি অপরাধে হত্যা করা হলো বা হত্যাকান্ড! বিষয়টি ধূম্রজাল তৈরি করেছে। সঠিকভাবে তদন্ত করলে বেরিয়ে আসবে রহস্য।

 

Spread the love
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us