শিরোনাম

বগুড়ার নৌকায় ভোট না দেওয়া নিয়ে আ. লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ,১০ জন আহত

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : বুধবার, নভেম্বর ৩, ২০২১ ৯:১০:১২ অপরাহ্ণ
বগুড়ার নৌকায় ভোট না দেওয়া নিয়ে আ. লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ,১০ জন আহত
বগুড়ার নৌকায় ভোট না দেওয়া নিয়ে আ. লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ,১০ জন আহত

বগুড়ার সোনাতলায় পৌর নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট না দেওয়ায় হোসেন আলী নামে এক ব্যক্তিকে মারপিট করা নিয়ে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ উপজেলা চেয়ারম্যান ও নবনির্বাচিত মেয়রসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। বুধবার দুপুরে সোনাতলা পৌর এলাকার মাইক্রোবাস স্ট্যান্ড এলাকায় এই সংর্ঘের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় লোকজন জানান, বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী নবনির্বাচিত মেয়র জাহাঙ্গীর আলম নান্নুর কর্মী হোসেন আলী দুপুরের দিকে সোনাতলা সদরে মাইক্রোবাস স্ট্যান্ডে হেঁটে যাচ্ছিলেন।

এ সময় সেখানকার আইনুর নাহার নামে এক নারী নৌকা মার্কায় ভোট না দেওয়ায় হোসেনের সাথে তর্কে লিপ্ত হয়। একই সময় সেখান দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মিনহাদুজ্জামান লীটনসহ কয়েকজন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী। তাদেরকে দেখে নারী দোকানি হোসেন আলীকে মারপিট শুরু করে।

মুহূর্তের মধ্যে এ খবর চলে যায় নবনির্বাচিত মেয়র নান্নুর কানে। মারপিটের খবরে তিনি দল বল নিয়ে মাইক্রোবাস স্ট্যান্ডে হাজির হয়। এ সময় কেউ কিছু বুঝে ওঠার আগেই মেয়রের লোকজন উপজেলা চেয়ারম্যানকে ধাওয়া করে মারপিট শুরু করে। এক পর্যায়ে তার পিঠে ছুরিকাঘাত করা হয়। এই হামলার খবর ছড়িয়ে পড়লে দুই পক্ষের নেতাকর্মীরা সেখানে জড়ো হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। বেশ কিছুক্ষন ধরে চলে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া।

হামলা প্রসঙ্গে নবনির্বাচিত মেয়র জাহাঙ্গীর আলম নান্নু বলেন, পরিকল্পিতভাবে তার নেতাকর্মীদের উপর হামলা চালানো হচ্ছে। তারা প্রতিবাদ করতে গিয়ে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। তিনি দাবি করে প্রথমে তাদের উপরই হামলা চালানো হয়।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us