শিরোনাম

বঙ্গকথা সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সম্মাননা অ্যাওয়ার্ড পেলেন জয়পুরহাটের কৃতি সন্তান কবি সাফিউল

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শনিবার, জুলাই ১৬, ২০২২ ৬:০৪:০০ অপরাহ্ণ
বঙ্গকথা সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সম্মাননা অ্যাওয়ার্ড পেলেন জয়পুরহাটের কৃতি সন্তান কবি সাফিউল
বঙ্গকথা সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সম্মাননা অ্যাওয়ার্ড পেলেন জয়পুরহাটের কৃতি সন্তান কবি সাফিউল
আবু রায়হান, জয়পুরহাটঃ
সাহিত্য অঙ্গনে এবং স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে বিশেষ অবদান রাখায় বঙ্গকথা সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন খুলনা হতে জয়পুরহাটের কৃতি সন্তান কবি সাফিউল ইসলামকে ২০২২ সম্মাননা অ্যাওয়ার্ড  প্রদান করা হয়েছে।
শুক্রবার (১৫ জুলাই) বিকালে খুলনা বিএমএ ভবনে এ উপলক্ষে প্রধন অতিথি হিসেবে খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মল্লিক আবিদ হোসেন কবির উক্ত সংগঠনের পক্ষ থেকে সাফিউল ইসলামের হাতে অ্যাওয়ার্ডটি তুলে দেন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, কবি মঞ্জু খন্দকার ও সাংবাদিক হুমায়ুন কবির সহ বিভিন্ন এলাকা হতে আগত কবি সাহিত্যিক সংগীত শিল্পি ও গুণীজন।
উদীয়মান তরুন এই কবি ও সেচ্ছাসেবক হলেন, জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার মাত্রাই ইউনিয়নের হিমাইল গ্রামের সানাইল ইসলাম ও বুলবুলি বিবির দাম্পত্য জীবনে ১৯৯৪ সালে জন্ম গ্রহণ করে।
নিজ এলাকার বিয়ালা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি, মাত্রাই মডেল কলেজ থেকে এইসএসসি এবং জয়পুরহাট সরকারি কলেজ থেকে বিএ পাস করেন তিনি। অল্প দিনের মধ্যেই সাহিত্য জগতে ব্যাপক সুনাম অর্জন করেন।
বর্তমান তিনি বঙ্গকথা সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের জয়পুরহাট জেলা শাখার সভাপতি ও রবীন্দ্র সাহিত্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং বাংলাদেশ সামাজিক সেবা ফাউন্ডেশন ও ব্লাড ব্যাংকের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালন করছেন।
তার লেখা একক বই “উন্নয়ন মাতা শেখ হাসিনা” সাহিত্য অঙ্গনে ব্যাপক প্রসার লাভ করেছেন। লেখালেখির স্বীকৃতিস্বরুপ বিভিন্ন সাহিত্য পরিষদ তাকে সম্মাননা প্রদান করেছেন।
লেখালেখির পাশাপাশি তিনি বিভিন্ন সামাজিক ও মানবিক সংগঠনের সাথে যুক্ত হয়ে মানুষের সেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিয়েছেন। মহামারী করোনাকালীন সময়ে ত্রাণ সহায়তা,শীতার্ত মানুষের মাঝে শীত বস্ত্র বিতরণ ও গরীব অসহায় পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিয়েছেন। পাশাপাশি বিভিন্ন হাসপাতাল, ক্লিনিকে মূমূর্ষু রোগীদের স্বেচ্ছায় রক্ত সংগ্রহ করেও দেন তিনি।
তরুণ ও উদীয়মান কবি সাফিউল ইসলাম লেখা লেখির পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক ও মানবিক সংগঠনের সাথে যুক্ত হয়ে মানুষের সেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিয়েছেন।
তার সার্বিক মঙ্গল কামনা করে এলাকাবাসীরা বলেন, আমাদের এলাকার কৃতি সন্তান সাফিউল নিজ এলাকাসহ জয়পুরহাটের ইতিহাস ঐতিহ্যকে বিশ্ববাসীর কাছে তার লেখনী ও কর্মের মাধ্যমে তুলে ধরবে।
Spread the love
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us