শিরোনাম

বরিশালের গভীর রাতে দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে এক নারীকে জবাই করেছে দুর্বৃত্তরা

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : বুধবার, নভেম্বর ২৩, ২০২২ ১২:৫৬:৩০ অপরাহ্ণ

বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার নতুনহাটে গভীর রাতে দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে মারুফা আক্তার (২৮) নামে এক নারীকে জবাই করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় ওই পরিবারের আরও দুই সদস্য আহত হন। পরে নিহতের স্বামীকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে স্থানীয়রা। ওই নারীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে সন্দেহ স্বজনদের। বিষয়টি তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নিহতের ছোট বোন পূবালী বেগমের অভিযোগ, মিলন খানের প্রথম স্ত্রীর পরিবারের লোকজন পরিকল্পিতভাবে মারুফাকে হত্যা করেছে। মিলন এ ঘটনার সবই জানেন বলে সন্দেহ তার।

নিহত মারুফা আক্তার ওই গ্রামের মিলন খানের স্ত্রী এবং দুই সন্তানের জননী। প্রায় ১০ বছর আগে প্রথম স্ত্রীকে তালাক দিয়ে মারুফাকে বিয়ে করেন মিলন।

নিহতের বড় ভাই আমিরুল ইসলাম সুমন বলেন, ঘরের মূল্যবান মালামাল অক্ষত রয়েছে। তার সন্দেহ ডাকাতি নয়, হত্যার উদ্দেশ্যেই দুর্বৃত্তরা ঘরে ঢুকেছিল। বরিশালের বাকেরগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ফরহাদ সরদার বলেন, সব কিছু বিবেচনায় নিয়েই তদন্ত করছে পুলিশ। এ ঘটনার ক্লু উদঘাটন ও হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। পুলিশ গতকাল মারুফার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল মর্গে প্রেরণ করেছে।

নিহতের স্বজনরা অভিযোগ করেন, গত সোমবার রাত ১টার দিকে নতুনহাট গ্রামের মিলন খানের ঘরে ঢুকে ছয়জনের একদল মুখোশধারী দুর্বৃত্ত। তারা অস্ত্রের মুখে পরিবারের সবাইকে জিম্মি করে। তারা মারুফাকে জবাই করে। নিহতের স্বামী মিলন খানকে হাত-পা বেঁধে কুপিয়ে আহত করা হয়। মারুফার ভাতিজি জুয়েনা আক্তারকে মারধর করে দুর্বৃত্তরা। এক পর্যায়ে মারুফার শিশু ছেলে মিরাজ খান প্রতিবেশীদের গিয়ে বিষয়টি জানায়। প্রতিবেশীরা লাঠিসোঁটা নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগেই দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। পরে আহত মিলনকে উদ্ধার করে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়।

Spread the love
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us