শিরোনাম

বিক্রয়কর্মীদেরই পরিকল্পিত ও সাজানো ঘটনায় ৩২ লাখ টাকা ছিনতাই

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শুক্রবার, জুন ১৯, ২০২০ ৩:০০:৪৩ অপরাহ্ণ
বিক্রয়কর্মীদেরই পরিকল্পিত ও সাজানো ঘটনায় ৩২ লাখ টাকা ছিনতাই
বিক্রয়কর্মীদেরই পরিকল্পিত ও সাজানো ঘটনায় ৩২ লাখ টাকা ছিনতাই

রাজশাহী মহানগরী থেকে দিনদুপুরে ছিনতাই হওয়া ৩২ লাখ টাকা উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) রাত সাড়ে ৮টার দিকে নগরীর কাশিয়াডাঙ্গা থানার বালিয়া পশ্চিমপাড়ার সেনপুকুর এলাকার একটি বাড়ি থেকে টাকাগুলো উদ্ধার করা হয়।

রাজশাহী নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারন চন্দ্র বর্মণ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। ওসি জানান, ঘটনার পর থেকে খোয়া যাওয়া টাকা উদ্ধারে অভিযানে নামে পুলিশ। রাত সাড়ে ৮টার দিকে কাশিয়াডাঙ্গা থানা এলাকা থেকে ৩২ লাখ টাকা উদ্ধার করা সম্ভব হয়। বাকি এক লাখ টাকা উদ্ধারে তৎপর আছে পুলিশ।

ওসি নিবারন চন্দ্র বর্মণ জানান, ‘হ্যালো রাজশাহী-২’ নামে প্রতিষ্ঠানটির আওতায় বেশ কয়েকটি মোবাইল ফোন ও ইলেকট্রনিক কোম্পানির শো-রুম আছে। এর মধ্যে ভিভো’র দু’জন বিক্রয়কর্মী বৃহস্পতিবার দুপুরে দু’টি ব্যাগে ৩৭ লাখ ৩৭ হাজার টাকা নিয়ে ব্যাংকে জমা করতে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে তাদের থেকে ৩৩ লাখ টাকা থাকা ব্যাগটি ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া যায়।

ওসি বলেন, ছিনতাইয়ের ঘটনার পরপরই ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরা দেখে ধারণা করা হচ্ছিল- এটা বিক্রয়কর্মীদেরই সাজানো ঘটনা। সেই সন্দেহ থেকে যাদের কাছ থেকে টাকা ছিনিয়ে নেওয়া হয়, ভিভো’র সেই দু’জন বিক্রয়কর্মীকে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পরে ‘হ্যালো রাজশাহী-২’ এর অন্য কোম্পানির শো-রুমের একজন বিক্রয়কর্মীকে আটক করা হয়।

‘জিজ্ঞাসাবাদে তার দেওয়া তথ্যে কাশিয়াডাঙ্গা থানাধীন বালিয়া পশ্চিমপাড়ার সেনপুকুর এলাকায় তার বন্ধুর বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। ওই বাড়ি থেকে টাকাগুলো উদ্ধার করা হয়। তবে পুলিশ অভিযানে যাওয়ার আগেই বাড়ি থেকে পালিয়ে যান ওই বিক্রয়কর্মীর বন্ধু। তবে ভিভো’র দু’জন বিক্রয়কর্মী ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেনি’ বলে জানান ওসি।

নিবারন চন্দ্র বর্মণ আরও বলেন, ‘উদ্ধার করা টাকা ও আটকদের থানায় এনে অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পুরো রহস্য উদঘাটনের পর মামলা ও আইন অনুযায়ী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’

এর আগে ভিভো শো-রুমের প্রোপাইটর রঞ্জন রায় জানান, তারা কয়েকজন ব্যবসায়ী মিলে শো-রুমটি চালান। নতুন কিছু ফোন নেওয়ার জন্য টাকাগুলো ভিভোর ব্যাংক হিসাবে জমা দেওয়ার কথা ছিলো।

তাদের দুই কর্মী দুপুরে দুটি ব্যাগে করে টাকা নিয়ে ব্যাংকে যাওয়ার পথে ৩৩ লাখ টাকার ব্যাগটি ছিনিয়ে নেওয়া হয়। সাহেববাজারের দিক থেকে মোটরসাইকেল যোগে দুই যুবক এসে ব্যাগ নিয়ে নিউমার্কেট হয়ে রেলগেটের দিকে চলে যায় বলেও জানান তিনি।

তবে ছিনতাইয়ের ঘটনার পর থেকেই পুলিশ ধারণা করছিল- পুরো ঘটনাটি পরিকল্পিত ও সাজানো।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর