শিরোনাম

বিয়ে বাড়িতে প্রেমিককে পাওয়ার জন্য প্রেমিকার অনশন…..

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : বৃহস্পতিবার, মার্চ ৪, ২০২১ ১১:২২:০৪ অপরাহ্ণ
বিয়ে বাড়িতে প্রেমিককে পাওয়ার জন্য প্রেমিকার অনশন.....
বিয়ে বাড়িতে প্রেমিককে পাওয়ার জন্য প্রেমিকার অনশন…..

মোঃ সোলেমান হোসেন শ্রাবণ, লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে বিয়ের দা’বিতে প্রেমিক রাজিবের (৩৫) বাড়িতে অ’নশনে বসেছেন দুই সন্তানের জননী (২৫)। উপজে’লার উত্তর চরবংশী ইউনিয়নের খাসেরহাট এলাকার হাওলাদার বাড়িতে এ ঘ’টনা ঘ’টে। ওই গৃহবধূর বাড়ি ভোলার চরফ্যাশনে। মঙ্গলবার (২ মা’র্চ) বিকেলে কয়েকজন সাংবাদিক এলাকায় উপস্থিত হলে জনসাধারণের মধ্যে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। এ সময় প্রেমিক রাজিবের বাড়িতে ভিড় জমায় এলাকাবাসী।

জা’না যায়, ঢাকার কালীগঞ্জে ব্যবসায়ী স্বামী ও দুই সন্তান নিয়ে ৪ বছর ধ’রে ভাড়া বাসায় বসবাস করছিলেন ওই গৃহবধূ। সেখানে পাশের বাসায় ভাড়া থাকতেন রাজিবের দুই ফুফু ও তাদের পরিবার। ফুফুর বাসায় আসা-যাওয়ার ফলে গত দুই বছর ধ’রে রাজিবের স’ঙ্গে ওই গৃহবধূর পরকীয়া স’স্পর্ক গড়ে উঠে। এ কারণে তার স’ঙ্গে স্বামীর বিরো’ধ দেখা দেয়। পরে রাজিব করো’না র সময় চাকরি ছে’ড়ে গ্রামে চলে আসেন।গেল পাঁচ দিন আগে ওই নারী তার স্বামী, ছয় বছরের ছেলে ও আট বছরের মেয়েকে রেখে প্রেমিক রাজিবের রায়পুরের বাড়িতে আসেন। কিন্তু রাজিব ও তার অভিভাবক ওই গৃহবধূকে তাড়িয়ে দেয়। নিরুপায় হয়ে বিচার ও বিয়ের দা’বি জা’নিয়ে লক্ষ্মীপুরে র‌্যাবের কাছে লিখিত অ’ভিযোগ করেন তিনি।

অ’ভিযোগটি গ্রহণ করে র‌্যাব উত্তর চরবংশী ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে ওই গৃহবধূকে পাঠায়। চেয়ারম্যান গত শনিবার সন্ধ্যায় রাজিবের অভিভাবককে ইউপি কার্যালয়ে ডেকে বিয়ে করে ওই গৃহবধূকে ঘরে তুলে নিতে নির্দে’শ দেন। চেয়ারম্যানের নির্দে’শনা না মেনে রাজিব ও অভিভাবকরা বাড়ি চলে যান। পরে বিয়ে হবে বলে চেয়ারম্যান ওই নারীকে রাজিবের বাড়িতে পাঠিয়ে দেন।

ওই নারী বলেন, স্বামী আমাকে তালাক দেয়ায় বিয়ের প্রস্তাব দেয়া হলেও রাজিব আমাকে বিয়ে করছে না। ইউপি চেয়ারম্যানকে জা’নিয়ে রাজিবের বাড়িতে অব’স্থান করছি। শনিবার আমাদের বিয়ের কথা থাকলেও রাজিব বাড়ি থেকে লাপাত্তা। উত্তর চরবংশী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল হোসেন বলেন, রাজিব ও তার অভিভাবক দুই দিন সময় নিয়েছিল কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনও খোঁ’জখবর নাই। আবারও চেষ্টা করা হবে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us