শিরোনাম

বেচু বাহিনীর আতংকে লক্ষ্মীপুরের হাজিরপাড়াবাসী।

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শুক্রবার, এপ্রিল ৮, ২০২২ ১২:১১:৫১ পূর্বাহ্ণ
বেচু বাহিনীর আতংকে লক্ষ্মীপুরের হাজিরপাড়াবাসী।
বেচু বাহিনীর আতংকে লক্ষ্মীপুরের হাজিরপাড়াবাসী।

লক্ষ্মীপুরের হাজিরপাড়াতে নতুন করে নুর আলম বেচু বাহিনীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে সাধারণ মানুষ। এই বাহিনীর জুলুম ও নির্যাতনের আতংকে দিশেহারা প্রায় সকলেই।

নারী কেলেঙ্কারি, জবর দখল, মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানি ও চাঁদাবাজিসহ নানা অপরাধমুলক কর্মকাণ্ডে এখন আলোচনায় রয়েছে বেচু ও তার বাহিনী।
সদর উপজেলার হাজিরপাড়া ইউনিয়নের ত্রাস হিসেবে খ্যাত এ বাহিনীর সদস্য সংখ্যা রয়েছে এখন প্রায় ৬০-৭০ জন। ভুক্তভোগীরা গোপনে গোপনে সাংবাদিকদের সাথে যোগাযোগ করে এসব অভিযোগ করেন। তারা প্রশাসনের সহযোগিতা নিতে গেলেও কোন ফলাফল পায় না। কেননা বেচু বাহিনীর হাত সব জায়গাতে প্রশস্ত।

ভুক্তভোগীরা আরো জানিয়েছেন যে,, দীর্ঘ দিন থেকে স্থানীয় নবী তাহেরপুর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল গফুরের ছেলে নুর আলম বেচু নিজেকে বাহিনী প্রধান পরিচয় দিয়ে এলাকায় সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। তিনি নারী কেলেঙ্কারি, জমি জবর দখল, মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে সাধারণ মানুষদের হয়রানি ও চাঁদাবাজি, অশালীন আচরণসহ নানা অপরাধমুলক কর্মকাণ্ড চালাচ্ছেন। তার ভয়ে আতঙ্কিত হয়ে উঠেছে গ্রামবাসী।

তার ভয়ে স্থানীয় শফি কাজী ও তার পরিবার, সখিনা বেগম, আব্দুর রব ড্রাইভারের পরিবারসহ অসংখ্য মানুষ এলাকাছাড়া হয়েছে। অনেকে তাদের নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে বাড়িঘর ছেড়ে দিয়ে মানবেতর দিন কাটাচ্ছে । ২০০১ সালে বেচু সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর সুস্থ হয়ে আরও বেপরোয়া হয়ে উঠে। সোমবার দিবাগত রাতে বিবি কুলসুম ও তার যুবতী কন্যার উপর নির্যাতন (মারধর) চালায় বেচু ও তার বাহিনীর সদস্যরা। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে তারা পালিয়ে যায় বলে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা।

সম্প্রতি কিছু গণ্যমান্য লোক তাদের অপকর্মের প্রতিবাদ করায় গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গকে নিয়ে উল্টো অপপ্রচার চালায় তাদেরকে হেয়প্রতিপন্ন করে নানানভাবে হুমকি ধমক দিয়ে থামিয়ে দেয় বলে জানান তারা। এমন পরিস্থিতিতে তার বিচারের দাবি জানিয়েছে স্থানীয় লোকজন । এ সময় উপস্থিত ছিলেন, হাজির পাড়া ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মাসুদ রানা, ভুক্তভোগী চন্দ্রগঞ্জ থানা সেবকলীগের যুগ্ম সম্পাদক সালাহ উদ্দিন টিটু, ইউপি সদস্য মিঠু, কাজী আনোয়ার হোসেন, বণিক সমিতির সম্পাদক মো. ইসরাফিল, বিবি কুলসুম প্রমুখ।

এ সব বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযোগ অস্বীকার করে অভিযুক্ত নুর আলম বেচু বলেন, তার কোন বাহিনী নেই, পরিকল্পিতভাবে সুবিধাভোগীরা তাকে এলাকা ছাড়া করেছে বলে পাল্টা অভিযোগ করেন বেচু। কিন্তু তার কথার কোন সঠিক প্রমান পাওয়া যায়নি।
ইতিপূর্বেই এলাকারবাসিন্দাগন এই ব্যাপারে সংবাদ সম্মেলনও করেছে গত বুধবার।

আরও পড়ুনঃ

কলাপাড়ায় তুলা গাছ থেকে পড়ে এক বৃদ্ধের মৃত্যু ॥
বানারীপাড়ায় হাসপাতাল থেকে মৃত ঘোষিত শিশু দাফনের প্রস্তুতিকালে নড়ে ওঠায় বিক্ষোভ
জয়পুরহাট র‍্যাব ক্যাম্পের পৃথক অভিযানে ১টি আগ্নেয়াস্ত্র ও ৪ কেজি গাঁজাসহ আটক-২
রূপগঞ্জে আম পারাকে কেন্দ্র করে দু‘পক্ষের সংঘর্ষে নিহত-১ আহত-৪
জয়পুরহাটে আব্দুল গাফ্ফার চৌধরীর মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব ও বাংলা টিভির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত
মহিপুরে সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত ॥
পরশুরামের শাহীন চৌধুরী হত্যা মামলায় সাবেক ইউপি মেম্বার যুবলীগ নেতা জাহিদ কারাগারে
শুরু হলো পাবনার ইছামতি নদী পারের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান।
Spread the love
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us