শিরোনাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ছাত্রলীগের আল্টিমেটাম জোড়া খুন মামলার আসামির মুক্তির দাবিতে!

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শুক্রবার, মার্চ ১২, ২০২১ ৩:৩২:১৬ পূর্বাহ্ণ
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ছাত্রলীগের আল্টিমেটাম জোড়া খুন মামলার আসামির মুক্তির দাবিতে!
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ছাত্রলীগের আল্টিমেটাম জোড়া খুন মামলার আসামির মুক্তির দাবিতে!

বহুল আলোচিত জোড়া খুনের মামলায় কারাগারে আটক ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার সাতমোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুদ রানার অবিলম্বে মুক্তির দাবিতে বৃহস্পতিবার বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সভা হয়েছে। নবীনগর উপজেলা ছাত্রলীগের ব্যানারে অনুষ্ঠিত ওই প্রতিবাদ সভা থেকে আগামি ৭২ ঘণ্টার মধ্যে কারাবন্দি চেয়ারম্যানের মুক্তি (জামিন) দেওয়ার দাবি জানানো হয়। না হলে পরবর্তীতে কঠোর কর্মসূচি ঘোষণার হুঁশিয়ারী দেন ছাত্রলীগ নেতারা। গ্রপ্তার মাসুদ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ হালিমের ছোট ভাই।

২০১৭ সালের ১মার্চ উপজেলার রসুল্লাবাদ ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামে সালিসে ডেকে নিয়ে রসুল্লাবাদের ‘হক ডাকাত’ খ্যাত খন্দকার এনামুল হক ও তার ভায়রা ভাই বিজিবির প্রাক্তন সদস্য ইয়াছিন মিয়াকে পিটিয়ে হত্যা করে দুর্বত্তরা। পরে নিহত এনামুলের স্ত্রী তসলিমা বাদী হয়ে পার্শ্ববর্তী সাতমোড়ার চেয়ারম্যান মাসুদ রানাকে জোড়া খুনের মামলায় তিন নম্বর আসামি দিয়ে একটি হত্যা মামলা করেন। গত ৮ মার্চ (সোমবার) এ মামলায় আত্মসমর্পণ করতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করেন চেয়ারম্যান মাসুদ রানা। কিন্তু বিজ্ঞ আদালত জামিন নামঞ্জুর করে চেয়ারম্যান মাসুদ রানাকে জেলা হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় ডাকবাংলো সড়কে বিক্ষোভ মিছিল শেষে প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন ছাত্রলীগ নেতা আরিফুল ইসলাম রাজীব। ছাত্রনেতা সাইফুর রহমান রকির সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক জিএস খায়রুল আমীন, ফরিদ হোসেন, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা সালাউদ্দিন বাবু, যুবলীগ সেক্রেটারি আশরাফুল ইসলাম রিপন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা পারভেজ হোসেন, আতিক, দেলোয়ার প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, জোড়া খুনের একটি মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে চেয়ারম্যান মাসুদকে জেলে নেওয়া হয়েছে। তাই আগামি ৭২ ঘণ্টার মধ্যে মাসুদ চেয়ারম্যানের মুক্তিসহ মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। অন্যথায় কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us