শিরোনাম

ভেরিফিকেশন করতে মিষ্টি ও ফুল নিয়ে চাকরী প্রার্থীদের বাড়িতে ফুলছড়ি থানার ওসি

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৭, ২০২১ ৯:০৩:৩৫ অপরাহ্ণ
ভেরিফিকেশন করতে মিষ্টি ও ফুল নিয়ে চাকরী প্রার্থীদের বাড়িতে ফুলছড়ি থানার ওসি
ভেরিফিকেশন করতে মিষ্টি ও ফুল নিয়ে চাকরী প্রার্থীদের বাড়িতে ফুলছড়ি থানার ওসি

মজিবর রহমান (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি: পুলিশে চাকরি প্রার্থীদের ভেরিফিকেশন করতে মিষ্টি এবং ফুল নিয়ে তাদের বাড়িতে হাজির হচ্ছেন ফুলছড়ি থানার ওসি। আর তা দেখে রীতিমতো অবাক হচ্ছেন চাকরি প্রার্থীরা।

সম্প্রতি পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগ প্রক্রিয়ায় ফুলছড়ি উপজেলার ৭ জনকে বাছাই করা হয়। এখন তাদের পুলিশ ভেরিফিকেশন চলছে। আর ভেরিফিকেশন করতে তাদের বাড়িতে মিষ্টি ও ফুল নিয়ে হাজির হচ্ছেন ফুলছড়ি থানার ওসিসহ পুলিশ সদস্যরা।

মঙ্গলবার (০৭ ডিসেম্বর) ফুলছড়ি উপজেলার মধ্য উড়িয়া গ্রামের শাহ জাহান, আকরাম কঞ্চিপাড়ার শাপলা পারভিনসহ সম্প্রতি পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগ প্রক্রিয়ায় বাছাইকৃত ৭ জনের বাড়িতে তথ্য ভেরিফিকেশন করতে যান ফুলছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাওছার আলীসহ আরও কয়েকজন পুলিশ সদস্য। বাড়িতে পৌঁছেই তারা তাদের হাতে মিষ্টির কার্টুন ও ফুলের তোড়া তুলে দেন। শীঘ্রই পুলিশ কনস্টেবল পদে নিয়োগ পেতে যাচ্ছেন তারা।

তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় শাহ জাহান বলেন, আমি দরিদ্র পরিবারের সন্তান, বিনা টাকায় চাকুরী হলো। আমার ভীতি ছিল পুলিশ ভেরিফিকেশন নিয়ে। আমার ধারণা পাল্টে গেল। আমি ভাবতেও পারিনি মিষ্টি আর ফুল নিয়ে ওসি স্যার আমার বাড়িতে ভেরিফিকেশন করতে আসবেন। পুলিশের এমন ব্যবহারে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন শাহ জাহানের বাবা আবুল কালাম।

শাহ জাহানের মতো আকরাম ও শাপলা পারভিনের বাড়িতেও যান পুলিশ সদস্যরা। তারাও পুলিশ কনস্টেবল পদে নিয়োগ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন। তাদেরকেও মিষ্টি ও ফুল উপহার দেন তারা।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ফুলছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাওছার আলী বলেন, পুলিশ সুপার স্যার নির্দেশ দিয়েছেন, ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়ায় কারও যেন বিড়ম্বনায় পড়তে না হয়। চাকরি প্রার্থীরা যেন বিষয়টাকে খুব ঝামেলার কাজ মনে না করেন, সে ধারণা থেকেই আমি তাদের বাড়িতে ফুল নিয়ে হাজির হয়েছি। তিনি বলেন, পুলিশিং ব্যবস্থায় অনেক পরিবর্তন এসেছে। পুলিশের প্রতি মানুষের নেতিবাচক ধারণা থেকে আমরা বের হয়ে এসে পুলিশ ক্রমেই জনগণের বন্ধু হয়ে ওঠছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us