1. admin@sonarbangla365.com : newsbangla2023 :
রিজেন্ট হাসপাতাল কেলেঙ্কারি আরেক সাহেদ তানিশা ওয়ার্ল্ড রিক্রুটিং এজেন্সী মালিক মাহবুবুর রহমান (রুবেল) - Sonar Bangla365
বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ১১:০০ অপরাহ্ন
আপডেট নিউজ

রিজেন্ট হাসপাতাল কেলেঙ্কারি আরেক সাহেদ তানিশা ওয়ার্ল্ড রিক্রুটিং এজেন্সী মালিক মাহবুবুর রহমান (রুবেল)

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৮২৩৫ Time View
রিজেন্ট হাসপাতাল কেলেঙ্কারি আরেক সাহেদ তানিশা ওয়ার্ল্ড রিক্রুটিং এজেন্সী মালিক মাহবুবুর রহমান (রুবেল)
রিজেন্ট হাসপাতাল কেলেঙ্কারি আরেক সাহেদ তানিশা ওয়ার্ল্ড রিক্রুটিং এজেন্সী মালিক মাহবুবুর রহমান (রুবেল)

নিজিস্ব প্রতিনিধিঃ
ঢাকাস্থ তানিশা ওয়ার্ল্ড রিক্রুটিং এজেন্সী রিক্রুটিং (লাইসেন্স না. : ২১৫৫)মালিক মাহবুবুর রহমান (রুবেল)বিরুদ্ধে একাধিক পাসপোর্ট জব্দ,দীর্ঘদিন ধরে বিদেশে পাঠানোর নাম করে হয়রানি, অর্থ আত্মসাৎ,জাল ভিসা,ওয়ার্ক পারমিট ও বিমানের টিকেট  সহ করোনা সার্টিফিকেট তৈয়েরির জালিয়াতি ও গ্রাহকদের হুমকি-ধমকি অভিযোগ উঠেছে।

অভিযুক্ত ব্যক্তি হলেন তানিশা ওয়ার্ল্ড রিক্রুটিং এজেন্সী মালিক মাহবুবুর রহমান (রুবেল)।তার ঢাকাস্থ অফিসের ঠিকানা হলঃ হাউস ন.-৯৮, রোড নো.-২, ব্লক-এ, নিকেতন, গুলশান-১, ঢাকা,বাংলাদেশ। সে বসবাস করে-হাউস ন: ৪৮, ব্লক-ড,রোড নো: ০৮, ফ্লাট-বঁ৩, নিকেতন-১,গুলশান-১, ঢাকা, বাংলাদেশ। মাহবুবুর রহমান (রুবেল) ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কসবা উপজেলার পুরকুইল গ্রামের বাড়ি।তার পরিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিরাসার গ্যাস ফিল্ড এলাকায় থাকেন।

গত ১৮ অক্টোবর, ২০২৩ তানিশা ওয়ার্ল্ড রিক্রুটিং এজেন্সী বিরুদ্ধে গ্রাহক হয়রানি ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগের নিউজটি আমাদের সোনারবাংলা পত্রিকায় প্রকাশিত হওয়ার পর থেকে একাধিক গ্রাহক যারা তানিশা ওয়ার্ল্ড রিক্রুটিং এজেন্সী দ্বারা প্রতারিত হয়েছে তারা আমাদের সোনারবাংলা অফিসে যোগাযোগ করেন। প্রতাড়িত বিদেশগামী গ্রাহকরা তানিশা ওয়ার্ল্ড রিক্রুটিং এজেন্সী মালিক মাহবুবুর রহমান (রুবেল)বিরুদ্ধে একাধিক পাসপোর্ট জব্দ,দীর্ঘদিন ধরে বিদেশ পাঠানোর নাম করে হয়রানি, অর্থ আত্মসাৎ,জাল ভিসা ও বিমানের টিকেট দিয়ে বিদেশ গামী গ্রাহক থেকে বিপুল পরিমান টাকা হাতিয়ে নেয়া ও  পাসপোর্ট ফেরত চাইলে হুমকি-ধমকির অভিযোগ করেন।

অভিযুগকারী প্রতারিত হওয়া গ্রাহকদের কাছে থেকে বের হচ্ছে চাঞ্চল্যর তথ্য। তানিশা ওয়ার্ল্ড রিক্রুটিং এজেন্সী মালিক মাহবুবুর রহমান (রুবেল) হলেন বর্তমান সময়ের রিজেন্ট হাসপাতাল চেয়ারম্যান প্রতারক সাহেদ।

প্রতারিত গ্রাহকরা অভিযোগ করেন যে , তানিশা ওয়ার্ল্ড রিক্রুটিং এজেন্সী মালিক মাহবুবুর রহমান (রুবেল) দীর্ঘ দিন যাবৎ তাদের পাসপোর্ট জব্দ করে রেখেছেন।টাকা নিয়ে কোনো কাজ করে নাই। পাসপোর্ট বা টাকা ফেরত চাইলে সে বিভিন্নভাবে হত্যার হুমকি দেয়। গ্রামের অসহায় সম্বলহীন কাছ থেকে বিপুল পরিমান টাকা আত্মসাৎ করে সে বিলাসী জীবন যাপন করছে।

অভিযোগকারীরা দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আমাদের সোনার বাংলা সাংবাদিকের সাথে যোগাযোগ করে তাদের প্রতারিত হওয়ার লোহমকর্ষ বিবরণ দেন। অভিযুক্ত কারীরা হলেন,মমিনুল,আরিফ আহমেদ,জাহিদ, হারুন ,তপন ,কাউসার, রাজিব, হাসান,বিল্লাল ,রিফাত ,সোহাগ মীয়াসহ প্রমুখ অনেকে।
তানিশা ওয়ার্ল্ড রিক্রুটিং এজেন্সী মালিক মাহবুবুর রহমান (রুবেল) ও তার সহযুগীদের মানব পাঁচারের নেটওয়ার্ক সারা বাংলাদেশের প্রতিটা জেলা ও উপজেলাতে তৈরি করেছেন ।

মাহবুবুর রহমান (রুবেল) ও তার চক্ৰ দেশের বিভিন্ন জেলা উপজেলার ভালো ,সৎ ,সম্মানিত মানুষকে টার্গেট করে বিভিন্ন আর্থিক প্রলোভন দেখায়।যেমন,ইউরোপ যাওয়ার লোকের জন্য ৫০ হাজার টাকা কমিশন। এশিয়া ও মধ্যে প্রাচ্যের জন্য ৩০ হাজার টাকার কমিশণের লোভ দেখায়। মাহবুবুর রহমান (রুবেল) ও তার চক্ৰরা বলেন যে, আমরা ইউরোপের বিভিন্ন দেশে লোক পাটাই। যদি কেউ কোনো লোক সংগ্রহ করে দিতে পারে তাহলে তাকে ৫০,০০০ হাজার টাকা কমিশন দেব । আর এই কমিশনের লোভে পরে অনেকে তাদের আত্মীয় স্বজনকে বিদেশ পাঠানোর জন্য তানিশা ওয়ার্ল্ড রিক্রুটিং এজেন্সী মালিক মাহবুবুর রহমান (রুবেল)ও তার চক্রের কাছে টাকা জমা দেয় কিন্তু সব টাকা হাতিয়ে নেয়ার পর রুবেল ও তার চক্ররা ওই এলাকার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন।

যশোর জেলার চৌগাছা উপজেলা হাকিমপুর ইউনিয়ন দেবীপুর গ্রামের মসজিদের মুয়াজিন আব্দুল করিম মোল্লা বলেন যে, তাদের পাশের গ্রামের তারেক নামের একলোক তানিশা ওয়ার্ল্ড রিক্রুটিং এজেন্সী তে কাজ করে। তারেক আমাকে বলেন,আমি যদি ইউরোপের জন্য কোনো লোক সংগ্রহ করে দিতে পারি তাহলে আমাকে তারা জন প্রতি  ৫০ হাজার টাকা করে দিবে।আমি যেন মসজিদে আসা মুসুল্লিদের কে বিদেশ তাদের মাধ্যমে যাওয়ার জন্য বলি। আমি আমার ভাতিজা সহ আরো তিনজনের জন্য ইউরোপের দেশ রোমানিয়াতে যাওয়ার জন্য ঢাকাস্থ তানিশা ওয়ার্ল্ড রিক্রুটিং এজেন্সী তে ৬ লক্ষ টাকা সহ ৪ জনের পাসপোর্ট জমা দেয় গত দুই বছর আগে।

আজ পঁযন্ত বিদেশ যাওয়া তো দূরে থাক ,পাসপোর্ট ও টাকা  ফেরত দেয় নি। বরং পাসপোর্ট ও টাকা ফেরত চাইলে মার ধরসহ হত্যার হুমকি দেয় তানিশা ওয়ার্ল্ড রিক্রুটিং এজেন্সী মালিক মাহবুবুর রহমান (রুবেল) ও তার চক্ৰ রা। মুয়াজিন আব্দুল করিম মোল্লা বলেন,আমি অসহায় গরিব মানুষ।মাসে ৬ হাজার টাকা বেতন পাই। মানুষ আমাকে বিশ্বাস করে ৬ লক্ষ টাকা তানিশা ওয়ার্ল্ড রিক্রুটিং এজেন্সী মালিক মাহবুবুর রহমান (রুবেল) কে দিয়েছে।এখন আমি কিভাবে সমাজে মুখ দেখাব আর মানুষের টাকা দিবো।

আরিফ ,জাহিদ ও মমিনুল বলেন, অনেকদিন ধরে তার কাছে থাকা আমার পাসপোর্টটি সে আটকিয়ে রেখেছে। সে আমাকে বিদেশেও পাঠাচ্ছে না।

হারুন বলেন, আমাকে যে ওয়ার্ক পারমিট টি দিয়েছে সেটি জাল। তারপর তার সাথে যোগাযোগ করলে এখন বলে পাসপোর্ট পেতে হলে আমাকে ২০ হাজার টাকা দিতে হবে।

কাউসার চৌধুরী বলেন, আমি একজন অটোচালক। আমার মাধ্যমে এক আত্মীয় থেকে মাহবুবুর রহমান (রুবেল) দুই লাখ টাকাও পাসপোর্টটি নেয় বিদেশ পাঠাবে বলে কিন্তু গত দুই বছর ধরে বিদেশে পাঠানোর কোন খবর নাই । পরবর্তীতে বিচার সালিশি করে শুধু পাসপোর্টটি পাই কিন্তু টাকা পাওয়ার কোনো খবরই নাই।
রাজিব বলেন, আমার ভাইকে মালয়েশিয়া পাঠাবে বলে ছয় লাখ টাকা নেয়। মাহবুবুর রহমান (রুবেল) মালয়েশিয়া ভিসা,ওয়ার্ক পার্মিট কাগজ ও বিমানের টিকেট সহ সবকিছু জাল তৈরি করে আমাদেরকে দেয়। পরে জানতে পারি তার দেয়া সব গুলো ভিসা ,টিকেট,ওয়ার্ক পারমিট সবই জাল। । রাজীব বলেন, আমি সদর থানায়  মাহবুবুর রহমান (রুবেল) বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ করেছি।

এই বিষয়ে মাহবুবুল আলমের ছোট ভাই ভাবরু মিয়ার সাথে কথা বললে, সে বলে আমিও ভাইরে দ্বারা প্রতারিত এবং প্রতিদিন অনেক বক্তভুগী ফোন করে আমাদের কাছে এবং তারাও বিভিন্নভাবে আমার ভাইয়ের দ্বারা প্রতারিত হয়েছে।

এই বিষয়ে গুলশান থানার এসআই রাকিবুল হাসান এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে,উনি বলেন বিষয়টি খুবই উদ্বেগ জনক।  ওরা বৈধভাবে বিদেশে যাওয়ার জন্য এজেন্সির মাধ্যমে প্রচেষ্টা করে প্রতারিত হয়েছে, আমরা যদি লিখিত অভিযোগ পাই তাহলে অবশ্যই এর বিষয়ে ব্যবস্থা নিব।

পরের পর্বে আরো বিস্তারিত আসছে……..

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Copyright © 2017-2023 SonarBangla365
Theme Customized BY LatestNews
%d bloggers like this: