শিরোনাম

সন্ত্রাসী আদর বাহিনীর হামলায় তিন সংবাদকর্মী আহত

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : সোমবার, মে ৩, ২০২১ ১০:১৭:৫৬ পূর্বাহ্ণ
সন্ত্রাসী আদর বাহিনীর হামলায় তিন সংবাদকর্মী আহত
সন্ত্রাসী আদর বাহিনীর হামলায় তিন সংবাদকর্মী আহত

মো:হাসান লামা উপজেলা প্রতিনিধি:—- কক্সবাজারের চকরিয়ায় পেশাগত দ্বায়িত্ব পালন করতে গিয়ে যুগান্তরের চকরিয়া প্রতিনিধি মনসুর মহসিনসহ তিন সংবাদকর্মী আদর বাহিনী এবং নয়ন বাহিনীর হাতে প্রকাশ্যে সন্ত্রাসী হামলায় স্বীকার হয়েছে।

২রা মে, রবিবার দুপুর আড়াইটার দিকে চকরিয়ার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের সাফারী পার্কের গেইটের সামনে এই ঘটনা ঘটে।আহতদেরকে চকরিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়েছে। আহত বাকী দুই জন হচ্ছে আমার সংবাদ পত্রিকার চকরিয়া প্রতিনিধি মোহাম্মদ উল্ল্যাহ এবং কক্সবাজারের আঞ্চলিক পত্রিকা আজকের দেশবিদেশের চকরিয়া প্রতিনিধি মোস্তাফা কামাল।

জানা যায়, রবিবার দুপুরে ডুলাহাজারায় পাহাড় ও বালু খেকো কথিত যুবলীগ নেতা হাসানুল ইসলাম আদরের মাটি কাটা এবং বালু উত্তোলনে বিভিন্ন আস্তানায় হানা দেয় পরিবেশ অধিদপ্তর। খবর পেয়ে এই তিন সংবাদকর্মী পরিবেশ অধিদপ্তরের সাথে সংবাদ সংগ্রহ করতে যান।

পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানের খবরাখবর সংগ্রহ করে ফেরার পথে সাফারী পার্কের গেইটের সামনে যুগান্তরের চকরিয়া প্রতিনিধি মনছুর মহসিনসহ আরো দুই সংবাদকর্মীর উপর প্রকাশ্যে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে অনুপ্রবেশকারী যুবলীগ নেতা সন্ত্রাসী হাসানুল ইসলাম আদর ওরফে আদর বাহিনী এবং আদরের বড় ভাই- ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি হাবিবুল ইসলাম নয়ন ওরফে নয়ন বাহিনী।

এই বাহিনী দুটির মধ্যে ছিলো ডুলাহাজারা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাঃ সম্পাদক আনাস, ভোলা মেম্বারের ছেলে তানবীর, রুস্তম গনির ছেলে সাকিব এবং চকরিয়া পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের মহিউদ্দিন মেম্বারের ছেলে মিসকাত খোকাসহ প্রায় ১২ জন সন্ত্রাসী।

এই সন্ত্রাসীদল শুধু সাফারী পার্কের গেইটে হামলা করে ক্ষান্ত হয়নি, চকরিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে দ্বিতীয় দফায় আবারো হামলার চেস্টা করে বলে জানায় যুগান্তর চকরিয়া প্রতিনিধি মনসুর মহসিন। এই নিয়ে পুরা চকরিয়া জুড়ে আতংক বিরাজ করছে।

প্রসংগত: এপ্রিল মাসের ২৬ তারিখ ‘অল্পদিনে যেভাবে অর্ধশত কোটি টাকার মালিক যুবলীগ নেতা’ এবং এপ্রিল মাসের ২৭ তারিখ ‘যুবলীগ নেতার নেতৃত্বে পাহাড় কেটে মাটি বিক্রি’ হেড লাইলে যুগান্তরের অনলাইনে দুটি নিউজ প্রকাশিত হয়। তাছাড়াও জাতীয় এবং স্থানীয় পত্রিকায় তার বিভিন্ন কুকীর্তির কথা তুলে ধরে চকরিয়ার সাংবাদিকমহল।

ফলে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠে এমপি জাফর আলমের কথিত পিএস হাসানুল ইসলাম আদর এবং তার ভাই হাবিবুল ইসলাম নয়ন যার ফলশ্রুতিতে আজকে হামলার স্বীকার হয় তিন জন সংবাদকমী। এ ব্যাপারে যুগান্তরের চকরিয়া প্রতিনিধি মনসুর মহসিন বলেন, ‘আমরা তিনজন পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানের নিউজ সংগ্রহ করে ফেরার সময় আমাদের ওপর আদর বাহিনী এবং নয়ন বাহিনীর প্রায় ১০/১২ জন সন্ত্রাসী আচমকা হামলা চালিয়ে আমাদেরকে মারধর করে এবং সাথে থাকা আইফোন মোবাইলসহ টাকা পয়সাগুলো ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

’ ডুলাহাজারা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরুল আমিন বলেন, ‘ঘটনা শুনার সাথে সাথে আমি চকরিয়া থানা পুলিশকে অবিহিত করি। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। আমার এলাকায় এরকম ঘটনা মোটেও কাম্য নয়। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’

এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ সাকের মোহাম্মদ জুবাইর বলেন, ‘আমরা সাথে সাথে ফোর্স পাঠিয়েছি। অলরেডি কয়েকটা টীম সন্ত্রসীদের ধরার জন্য মাঠে কাজ করছে এবং মামলার প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।”

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us