শিরোনাম

সাড়ে ৬শ কোটি টাকা ব্যয়ে শাহজাদপুর -এনায়েতপুরে নদী রক্ষা বাঁধ নির্মিত হবে

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : শনিবার, জুন ১২, ২০২১ ৬:২৮:৫১ অপরাহ্ণ
সাড়ে ৬শ কোটি টাকা ব্যয়ে শাহজাদপুর -এনায়েতপুরে নদী রক্ষা বাঁধ নির্মিত হবে
সাড়ে ৬শ কোটি টাকা ব্যয়ে শাহজাদপুর -এনায়েতপুরে নদী রক্ষা বাঁধ নির্মিত হবে
মির্জা হুমায়ুন,জেলা(সিরাজগঞ্জ)সংবাদদাতাঃ
সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর -এনায়েতপুরে নদী রক্ষা বাঁধ সাড়ে ৬শ কোটি টাকা ব্যয়ে ৬ মাসের মধ্য নির্মিত হবে। পানি সম্পদ মন্ত্রনালয়ের সিনিয়র সচিব কবির বিন-আনোয়ার বলেছেন, যমুনা নদীর ভাঙন রোধে এনায়েতপুর- শাজাদপুরের পাচিল পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৬ কিলোমিটার এলাকা রক্ষায় সাড়ে ৬শ কোটি টাকা প্রধানমন্ত্রী একনেক সভায় অনুমোদন দিয়েছেন। এই প্রকল্পের কাজ আগামী ৬ মাসের মধ্যে শুরু হবে। তিনি আরও বলেন, এই মুর্হুতে ভাঙনরোধে জরুরী ভিত্তিতে কিছু জিও ব্যাগ ডাম্পিং করা হচ্ছে। তীর সংরক্ষণ কাজ হলে সমৃদ্ধ এই এলাকাটি রক্ষা হবে।
শনিবার দুপুরে চৌহালী উপজেলাধীন খাজা ইউনুস আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, স্পার বাঁধ সহ এনায়েতপুর থানাধীন আড়কান্দি ও  শাজাদপুরের পাঁচিল এলাকা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি। এর আগে ভাঙন কবলিত এলাকায় সিনিয়র সচিব পৌছলে তাকে ফুলের তোরা দিয়ে শুভেচ্ছা জানান স্থানীয়রা।
এসময় উপস্থিত ছিলেন,সিরাজগঞ্জ পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম, এসডিই জোবায়ের হোসেন, এসও আবদুল ওয়াহাব, এনায়েতপুর থানা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) আজগর আলী বিএসসি, সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ বজলুর রশিদ, সদিয়া চাঁদপুর ইউপি চেয়ারম্যান রাশেদুল ইসলাম সিরাজ, জালালপুর ইউপি চেয়ারম্যান হাজী সুলতান মাহমুদ ও কৈজুরি ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।
উল্লেখ্য- যমুনা নদীতে পানি বৃদ্ধির পর থেকে এনায়েতপুর-আড়কান্দি-পাচিল পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৬ কিলোমিটার এলাকায় যমুনার ভাঙন শুরু হয়। ভাঙনে গত ১ মাসে প্রায় শতাধিক বসত ভিটা বিলীন হয়ে যায়। এ নিয়ে বিভিন্ন গনমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হয়। প্রায় ৫ বছর আগে জমা দেয়া তীর সংরক্ষন বাঁধ নির্মানে সাড়ে ৬শ কোটি টাকার প্রকল্প গত মঙ্গলবার একনেক সভায় অনুমোদন করেন প্রধানমন্ত্রী।
এখবর ছড়িয়ে পড়লে নদী তীরবর্তী এলাকাবাসির মধ্যে আনন্দ ছড়িয়ে পড়ে। তবে ভাঙন এলাকায় দ্রুতই কাজ শুরুর দাবি স্থানীদের।
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us