শিরোনাম

“সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে রাস্তার দাবিতে নারী, শিশু, বৃদ্ধা, ছাত্র, শিক্ষক ও বিভিন্ন শ্রেনীপেশার মানুষের মানববন্ধন”

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ১৪, ২০২১ ১২:৪৫:০১ অপরাহ্ণ
"সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে রাস্তার দাবিতে নারী, শিশু, বৃদ্ধা, ছাত্র, শিক্ষক ও বিভিন্ন শ্রেনীপেশার মানুষের মানববন্ধন"
“সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে রাস্তার দাবিতে নারী, শিশু, বৃদ্ধা, ছাত্র, শিক্ষক ও বিভিন্ন শ্রেনীপেশার মানুষের মানববন্ধন”
মির্জা হুমায়ুন, জেলা (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার বেলতৈল
ইউনিয়নে ৪শো মিটার রাস্তার দাবিতে গ্রামবাসীর উদ্যোগে এক মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত
হয়। বুধবার দুপুরে উপজেলার বেলতৈল ইউনিয়নের বড় বেতকান্দি (কামারপাড়া) গ্রামে
অনুষ্ঠিত প্রায় ঘন্টাব্যাপি এই মানববন্ধনে গ্রামের নারী, শিশু, বৃদ্ধা, ছাত্র, শিক্ষক ও বিভিন্ন
শ্রেনীপেশার মানুষ রাস্তার দাবিতে বিভিন্ন প্রকার লেখা সংবলিত ফেস্টুন হাতে অংশ নেয়।
স্থানীয় বাসিন্দা নিখিল কর্মকারের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন-
বড় বেতকান্দি গ্রামের লিটন সাহা, বুলবুলি সাহা, ও গৌরমহন সাহা প্রমূখ। বক্তারা বলেন, বড়
বেতকান্দি গ্রাম একটি ঐতিহ্যবাহী গ্রাম। গ্রামের প্রবেশ পথে একটি মসজিদ, গ্রামের শেষ
প্রান্তে প্রথমিক বিদ্যালয় ও উচ্চ বিদ্যালয় অবস্থিত। গ্রামের মাঝখানে একটি সেবা আশ্রম
রয়েছে। প্রায় ১’শ ১৫টি পরিবারের ৬’শ এর অধিক মানুষের বসবাস এই গ্রামে। জনসাধারণের
চলাচলের জন্য একমাত্র পথ হলো সরকারি পতিত ঢালূ পায়ে হাটার মাটির রাস্তা। বন্যার শুরু
হতে শেষ পর্যন্ত বুক পরিমাণ পানি অতিক্রম করে পাকা সড়কে উঠতে হয়। এই গ্রামের প্রায়
২’শ কোমলমতি শিশু ও কিশোর ছাত্র-ছাত্রীদের স্কুলে যেতে অনেক বেগ পেতে হয়। এজন্য
স্কুলে যাওয়ার প্রতি অনেকে আগ্রহ হারিয়ে ফেলে, ফলে তাদের শিক্ষা জীবন নষ্ট হওয়ার
উপক্রম হয়। অপরদিকে এই রাস্তার অভাবে শিশু কিশোর ছাত্রছাত্রীদের পার্শ্ববর্তী মালতিডাঙ্গা
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও হাইস্কুলে যেতে ২ মিনিটের রাস্তা প্রায় ২ কিঃমিঃ ঘুড়ে যেতে হয়।
তাছাড়া গর্ভবতী নারী, অসুস্থ রোগী, বৃদ্ধ মানুষ নিয়ে হাসপাতাল পর্যন্ত যাওয়ার আগে পাকা
সড়ক পর্যন্ত পৌছতেই আরো অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। মৃত মানুষদের দাফন ও সৎকারে নিয়ে
যেতেও সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। নিচু রাস্তা হওয়ার কারণে সামান্য বৃষ্টি হলেই জলাবদ্ধতা
শুরু হয়, সেই সাথে শুরু হয় তাদের দুর্ভোগ। এলাকাবাসী জানায়, স্থানীয় মেম্বার চেয়ারম্যারা
কোনদিন আমাদের খোঁজখবর নিতে আসেনি। সরকারি কর্মকর্তাদের কাছে বারবার ধ্বর্না
দিয়েও কোন আশ্বাস পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। ৪’শ মিটারের এই সড়কটি চলাচলের উপযোগী করা
হলে আমাদের জলবন্দী জীবন থেকে মুক্তি পাবো।
 এই বিষয়ে শাহজাদপুর উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) আহমেদ রফিকের নিকট  জানতে
চাওয়া হলে তিনি জানান, আমরা অধিক গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাগুলো নিয়েই এখন কাজ করছি। তবে
যেহেতেু সড়কের অভাবে গ্রামটিতে জনদুর্ভোগ রয়েছে তাই আমরা দ্রুত জনদুর্ভোগ লাঘবে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহন করবো।
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us