শিরোনাম

‘হাতের পাঁচ আঙুল’ গোটাচ্ছে চীন

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : মঙ্গলবার, জুলাই ২৮, ২০২০ ৭:২০:৪০ অপরাহ্ণ
‘হাতের পাঁচ আঙুল’ গোটাচ্ছে চীন
‘হাতের পাঁচ আঙুল’ গোটাচ্ছে চীন

সারা দুনিয়া যখন কোভিড-১৯ মোকাবিলা করতে গিয়ে জেরবার হচ্ছে, তখন যে দেশে এ মহামারির উৎপত্তি হয়েছে, সেই চীন আধিপত্য বিস্তারের জন্য অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে অনেক বেশি মরিয়া হয়ে উঠেছে। হিমালয় থেকে হংকং এবং তিব্বত থেকে পূর্ব চীন সাগর—সবখানেই দেশটি এত আগ্রাসী হয়ে উঠেছে যে মনে হচ্ছে মাও সে তুং যেখানে এ আগ্রাসনের সমাপ্তি টেনেছিলেন, সেখান থেকে সি চিন পিং শুরু করেছেন।

তিনি নিজের দেশে বিরুদ্ধ মতাবলম্বীদের ওপর নৃশংস অত্যাচার চালান, নিবর্তনমূলক আইন পাস করে হংকংয়ের বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নিয়েছেন, উইঘুর মুসলমানদের ধরে আটককেন্দ্রগুলো ভরে ফেলেছেন এবং আজীবন ক্ষমতায় থাকার জন্য আইন পাস করে নিয়েছেন। মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা রবার্ট ও’ব্রায়েন বলেছেন, সি চিন পিং নিজেকে জোসেফ স্তালিনের উত্তরাধিকারী মনে করেন। অনেকে সি চিন পিংকে হিটলারের সঙ্গে তুলনা করে ‘সিটলার’ নামে ডাকেন। তবে যাঁর সঙ্গে সি চিন পিংয়ের সবচেয়ে বেশি মিল পাওয়া যায় তিনি হলেন তাঁর পূর্বসূরি মাও সে তুং।

প্রথমত, সি নিজের ব্যক্তিত্বকে মাওয়ের চরিত্রের আদলের সঙ্গে মিল রেখে প্রকাশ করছেন। ২০১৭ সালে চীনের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিসি) তাদের সংবিধানে নতুন রাজনৈতিক মতবাদ চালুর ঘোষণা দেয়। সংবিধানে বলা হয়, ‘সি চিন পিংয়ের সমাজতান্ত্রিক ভাবনা নতুন যুগের সঙ্গে তাল মেলানো এবং চীনের নিজস্ব চরিত্রের সঙ্গে সংগতিপূর্ণ।’ নতুন যুগের সঙ্গে সংগতি রেখে চলা এ
নীতি সি চিন পিংকে চীনের আধুনিকায়নের জনক দেং জিয়াও পিংয়ের যোগ্য উত্তরসূরি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে। সিপিসি গত ডিসেম্বরে সি চিন পিংকে ‘এনমিন লিংজিউ’ শীর্ষক একটি অভিধা দিয়েছে, যার অর্থ ‘জনগণের নেতা’। এ খেতাব এর আগে মাও সে তুংকে দেওয়া হয়েছিল। এখন তিনি মাওয়ের অসমাপ্ত কাজ শেষ করার মিশনে নেমেছেন।

মাও জিনজিয়াং, তিব্বতসহ কিছু এলাকা দখল করে দেশের ভূখণ্ডের পরিমাণ দ্বিগুণ বানিয়েছিলেন। চীন এখন বিশ্বের চতুর্থ বড় দেশ। তিব্বত দখল করার পর চীনের সঙ্গে ভারত, নেপাল, ভুটান ও মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলের সীমান্ত প্রতিষ্ঠিত হয়। মাও তিব্বতকে চীনের ডান হাতের তালু মনে করতেন আর সেই হাতের পাঁচটি আঙুল হিসেবে নেপাল, ভুটান, এবং ভারতের লাদাখ, সিকিম ও অরুণাচলকে মনে করতেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর