শিরোনাম

২ মেছোবাঘকে পিটিয়ে হত্যা

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : সোমবার, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০ ৯:০০:৪৬ পূর্বাহ্ণ
২ মেছোবাঘকে পিটিয়ে হত্যা
২ মেছোবাঘকে পিটিয়ে হত্যা

বড়লেখায় খাদ্যের সন্ধানে লোকালয়ে এসে জনতার পিটুনিতে প্রাণ হারাল ২টি মেছোবাঘ। পালিয়ে কোনোমতে রক্ষা পেয়েছে আরেকটি মেছোবাঘ।

শুক্রবার হাকালুকি হাওরপাড়ের সুজানগর ইউনিয়নের উত্তর পাটনা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে মৃত ২ মেছোবাঘকে নিয়ে দিনব্যাপী গ্রামজুড়ে দুষ্টু ছেলেরা ফটোসেশনে মেতে উঠে।

বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ আইনে যে কোনো বন্যপ্রাণী হত্যা করা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। ধাওয়া করে আটকের পর প্রকাশ্যে হত্যার উদ্দেশে নির্মমভাবে মেছোবাঘ ২টিকে পেটানো হলেও গ্রামের কোনো সচেতন ব্যক্তি, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, বনবিভাগ কিংবা বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ বিভাগের কেউ এগিয়ে আসেনি। এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, সুজানগর ইউনিয়নের উত্তর পাটনা গ্রামের নজরুল স্টোরের পিছনের ঝোঁপে সাবেক ইউপি মেম্বার মুজিবুর রহমান ৩টি মেছোবাঘ দেখে চিৎকার করেন। তার চিৎকারে স্থানীয় লোকজন জড়ো হয়। পরে মেম্বারের নেতৃত্বে জনতা দা, লাঠিসোটা নিয়ে ঝোঁপ ঘেরাও দিয়ে মেছোবাঘগুলোকে ধাওয়া করে।

প্রায় ২ ঘণ্টা তাড়া করে মুজিব মেম্বার, সাজু মিয়া, রুয়েল প্রমুখ পিটিয়ে ২টি মেছোবাঘকে হত্যা করে। কোনোমতে পালিয়ে অপর মেছোবাঘটি প্রাণে রক্ষা পায়। পিটিয়ে হত্যার পর মৃত মেছোবাঘ দুটিকে নিয়ে এলাকার দুষ্টু ছেলেরা গ্রামে ঘুরে ঘুরে ফটোসেশনে মেতে উঠে।

গ্রামের মুদি ব্যবসায়ী বশির মিয়া ও ওয়ার্ড মেম্বার ফখরুল ইসলাম জানান, গত কয়েক দিন ধরে কয়েকটি মেছোবাঘ এলাকায় অবস্থান করছিল। সন্ধ্যার পর এলাকায় বাঘ আতংক বিরাজ করে।

বাঘের ভয়ে অনেকেই রাতে ঘর থেকে বের হন না। রাস্তাঘাটে বাঘের মুখোমুখি হয়ে অনেকেই পালাতে গিয়ে আহত হয়েছেন। তবে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় তারা দুঃখ প্রকাশ করেন।

বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের বড়লেখা রেঞ্জার মো. জোলহাস উদ্দিন জানান, মেছোবাঘের উৎপাত ও জনতার হাতে দুটি মেছোবাঘ মারা যাওয়ার খবর তাকে কেউ জানায়নি। খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নেবেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us