শিরোনাম

৪০তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার খাতা পুনর্মূল্যায়নের দাবি

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : রবিবার, ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২১ ৫:৪০:৪০ অপরাহ্ণ
৪০তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার খাতা পুনর্মূল্যায়নের দাবি
৪০তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার খাতা পুনর্মূল্যায়নের দাবি

৪০তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার খাতা পুনর্মূল্যায়নের দাবি জানিয়েছেন ওই বিসিএসে অংশ নেওয়া

কয়েকজন পরীক্ষার্থী। এ দাবিতে আজ রোববার সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) সামনে শিক্ষার্থীরা অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন। কর্মসূচিতে ৪০তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেওয়া

চাকরিপ্রত্যাশীরা অংশগ্রহণ করেন। এ সময় তাঁরা ৪০তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার খাতা পুনর্মূল্যায়নের দাবি মেনে নেওয়ার আহ্বান জানান।

৪০তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেওয়া পরীক্ষার্থীদের দাবি, ২৭ জানুয়ারি ৪০তম বিসিএস লিখিত

পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়। প্রকাশিত ফলাফলে ওএমআর ওভারলেপিং অথবা টেকনিক্যাল ত্রুটির

কারণে অনেক ভালো ফলপ্রত্যাশীরাও বাদ পড়েছেন। এই পরিপ্রেক্ষিতে ১, ৩ ও ৭ ফেব্রুয়ারি আলাদা

তালিকাসহ তিনটি আবেদন পিএসসি বরাবর দাখিল করা হয়। পিএসসি তাঁদের আবেদন গ্রহণ করেছে।

পিএসসির চেয়ারম্যান সোহরাব হোসাইন আজ রোববার  বলেন, লিখিত পরীক্ষার খাতা পরীক্ষক দেখেন।

এখানে পিএসসির করার কিছু নেই। পরীক্ষক কাউকে চেনেন না। তাঁরা খাতা দেখেন শুধু আর নম্বর দেন। কিছু কিছু ক্ষেত্রে তৃতীয় পরীক্ষকও খাতা দেখেছেন। এখানে কম নম্বর পাওয়ার সুযোগ নেই।

৪০তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার ফলপ্রত্যাশীদের অপেক্ষার পালা শেষ হয় গত ২৭ জানুয়ারি। ওই দিনই

বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়। এতে পাস করেছেন ১০ হাজার ৯৬৪ জন। উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মৌখিক পরীক্ষা ১৬ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে। লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেন প্রায় ২০ হাজার প্রার্থী।

পিএসসির সূত্রে জানা গেছে, একজন পরীক্ষক খাতা মূল্যায়ন করার পর তার মূল্যায়ন সঠিক হয়েছে কি না,

সেটি যাচাইয়ের জন্য ওই খাতা দ্বিতীয় ধাপে একজন নিরীক্ষক পুনরায় পরীক্ষা করেন। পুনর্নিরীক্ষণ করার

সময় নিরীক্ষক দেখেন, যেখানে যেমন নম্বর দেওয়ার কথা ছিল, তা দেওয়া হয়েছে কি না, আবার নম্বর যোগ

করতে কোথাও ভুল হয়েছে কি না। এই প্রক্রিয়া শেষ হলে তবেই ফলাফল চূড়ান্ত করা হয়। তৃতীয় পরীক্ষক

থেকে মূল্যায়নপত্র আসতে দেরি হওয়ায় ফল বিলম্ব হয়েছে বলে জানিয়েছে পিএসসি সূত্র। পরীক্ষার্থীদের

মেধা যথাযথভাবে মূল্যায়ন করতে ৩৮তম বিসিএস থেকে এভাবেই খাতা দেখে আসছে পিএসসি।

৪০তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় আবেদন করেছিলেন ৪ লাখ ১২ হাজার ৫৩২ জন প্রার্থী। এর মধ্যে পরীক্ষা দিয়েছেন ৩ লাখ ২৭ হাজার জন। তাঁদের মধ্যে প্রিলিমিনারিতে উত্তীর্ণ হন ২০ হাজার ২৭৭ জন। ২০১৮ সালের আগস্টে ৪০তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে পিএসসি।-সূত্র প্রথম আলো

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Facebook Comments

সাম্প্রতিক খবর

Contact Us